শিরোনাম

আন্তর্জাতিক

বিষাক্ত সাপ দিয়ে স্ত্রী-কন্যাকে হত্যা করলো স্বামী!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  বেশ কিছুদিন ধরে স্ত্রীর সাথে স্বামীর বনিবনা না হওয়ায় রাতে ঘুমন্ত স্ত্রী-কন্যার ইপর বিষাক্ত সাপ ছেড়ে দেয় স্বামী। আর এই সাপের কামড়ে মৃত্যু হয় স্ত্রী ও কন্যার।

আজ শুক্রবার(২৪ নভেম্বর) স্বামী গণেশকে গ্রেফতার করে পুলিশ। স্ত্রী বাসন্তী ও কন্যা দেবাস্মিতাতে হত্যার দায়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা গেছে, ২০২০ সালে অর্থাৎ ৩ বছর আগে ভারতের ওড়িশার গঞ্জাম জেলার কবিসূর্যনগরের আধেগাঁও গ্রামের গণেশের সাথে বিয়ে হয় বাসন্তীর। তাদের সংসারে একটি কন্যা রয়েছে। কিন্তু স্ত্রী বাসন্তীর সাথে গণেশের তেমন কোন মিল ছিল না। বেশীরভাগ সময় ঝরগা বিবাধ লেগেই থাকতো।

প্রায় দেড় মাস আগে গণেশ তার স্ত্রী এবং কন্যাকে বিষাক্ত সাপের কামড়ে হত্যা করে।

wife-daughter-dead-by-sanke-by husband-india-news-newsasia24

google news newsasia24

পুলিশ জানিয়েছে, গণেশ ধর্মীয় উদ্দেশে ব্যবহার করার কথা বলে ওই সাপটি কিনেছিলেন। এ ঘটনায় পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর (ইউডি) মামলা করেছে।

তাছাড়া বাসন্তীর বাবা গণেশের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন: 

নেদারল্যান্ডে রাজনৈতিক সুনামি

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: নেদারল্যান্ডে চলছে রাজনৈতিক সুনামি। নেদারল্যান্ডে গির্ট ওয়াইল্ডার্স ও তার অঙ্গসংগঠন দলগুলো সবচেয়ে শক্তিশালী দল হিসেবে বিবেচিত হয়েছে।

বুধবার (২২ নভেম্বর) সংসদ নির্বাচনে জয়ী হন গির্ট ওয়াইল্ডার্স। যিনি ইউরোপের সবচেয়ে বিখ্যাত ডানপন্থী জনতাবাদী এবং ইসলামের বিরোধীদের একজন।

গির্ট ওয়াইল্ডার্স এর ১৫০টি আসনের মধ্যে ৩৫ টি আসন আশা করাটা ইইরোপরে সংবাদ মাধ্যম “এনজেডজেড” রাজনৈতিক সুনামি বলে মনে করেন।

গতকাল বুধবার উইল্ডার্স তার সমর্থকদের উদ্দেশে খুশিতে চিৎকার করে বলেন, “আমরা বিজয় লাভ করেছি”, ডাচম্যান আবার প্রথম আসবে।

অনান্য প্রার্থীরাও তালিকায় ছিলেন

কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা এই নির্বাচনে অন্য তিন শীর্ষ প্রার্থীদের জনপ্রিয়দের তালিকায় রাখা হয়েছিল। এরা হলেন উদারপন্থী-রক্ষণশীল পিপলস পার্টি ফর ফ্রিডম অ্যান্ড ডেমোক্রেসি (ভিভিডি) থেকে দিলান ইয়েসিলগোজ, সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট এবং গ্রিনসের যৌথ তালিকা সহ ফ্রান্স টিমারম্যানস এবং মধ্যপন্থী পিটার ওমজিট।

europ-politics-tsubami-Wilders-Netherlands-newsasia24
গির্ট ওয়াইল্ডার্স নেদারল্যান্ডসে নির্বাচনের ফলাফলের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন

আরও পড়ুন: 

নির্বাচনে, বামপন্থী টিমারম্যানের জোটের রয়েছে ২৬ টি আসন, ইয়েসিলগোজের ভিভিডির রয়েছে ২৩ টি আসন, এবং ওমটিজিটের দলের রয়েছে ২০ টি আসন।

নির্বাচনে জয়ী হওয়া গির্ট ওয়াইল্ডার্স তার প্রতিপক্ষ দলকে একসাথে কাজ করার আহ্বান করেন।

এছাড়াও ওয়াইল্ডার্সের মতে, ইসলামের বিরুদ্ধে লড়াই এবং মসজিদ বা মাদ্রাসা বন্ধ করা অগ্রাধিকার নয়। দেশে আশ্রয়প্রার্থীদের প্রবেশ বন্ধ করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

google news newsasia24

বছর শেষে সোমালিয়ার এক চতুর্থাংশ ক্ষুধার্ত হওয়ার ঝুঁকি – জাতিসংঘ

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বছরের শেষে সোমালিয়ার জনসংখ্যার এক চতুর্থাংশ বা ৪.৩ লক্ষ মানুষ ক্ষুধার্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম (WFP) অনুসারে, তারা সম্প্রতি মারাত্বক বন্যার মুখোমুখি হয়েছিল। কয়েক দশকের সবচেয়ে খারাপ অবস্থা তাদের। কয়েক দশকের সবচেয়ে খারাপ ফলে লক্ষ লক্ষ মানুষকে অনাহারের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে এসেছে।

মানবিক সহায়তা এখন পর্যন্ত দুর্ভিক্ষ পরিস্থিতি রোধ করেছে, কিন্তু ডব্লিউএফপি অনুসারে, সোমালিয়া এক দশকেরও বেশি সময় ধরে তার সবচেয়ে খারাপ স্তরের অপুষ্টির মুখোমুখি হচ্ছে।

One-in-four-Somalis-could-go-hungry-by-the-end-of-the-year-UN
ছবি সংগৃহীত

আফ্রিকাকে সাহায্য করারমত জাতিসংঘের পর্যাপ্ত তহবিল নেই। তাদের সক্শমতার তুলনায় আফ্রিকার অর্ধেকেরও কম। 

রবিবারের একটি সরকারী প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অবিরাম বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট বন্যার কারণে সোমালিয়ায় কমপক্ষে ৩১ জন মারা গেছে এবং প্রায় ৫ লক্ষ  মানুষেকে তাদের বাড়িঘর ছেড়ে যেতে হয়েছে।

সোমালিয়ায় এল নিনোর আবহাওয়ার কারণে অবিরাম বৃষ্টিপাত হচ্ছে, যার ফলে বাড়িঘর এবং কৃষিজমি প্লাবিত হয়েছে।

বর্তমানে আফ্রিকার হর্নে বর্ষা মৌসুমকে প্রশস্ত করছে, ইথিওপিয়াতে (কমপক্ষে ২০ জন মারা গেছে) এবং কেনিয়াতে (কমপক্ষে ১৫ জন মারা গেছে) এর মারাত্মক পরিণতি হয়েছে।

আরও পড়ুন:

সোমালিয়াতে ১৭লক্ষ অধিবাসীদের অধিকাংশই গবাদি পশু এবং কৃষিকাজ করেন । জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলির মধ্যে একটি।

এই দরিদ্র দেশটি আল-কায়েদার সাথে সম্পৃক্ত ইসলামপন্থী যোদ্ধাদের আক্রমণেরও শিকার, যারা ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে রক্তক্ষয়ী বিদ্রোহ চালিয়ে আসছে।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

গাজায় কুকুরে খাচ্ছে লাশ

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: দিন দিন ভয়ংকর হয়ে উঠছে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনির যুদ্ধ। শোচনীয় পরিস্থিতিতে ভুগছে পুরো গাজা।ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে মরদেহ।

দাফনের জায়গা নেই। কুকুরের খাবার হয়ে উঠেছে লাশগুলো।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মুনির আল-বুর্শ সোমবার সকালে বলেছেন, রাস্তার কুকুররা আল-শিফা হাসপাতালের উঠোনে বেসামরিক লোকদের মৃতদেহ খাচ্ছে।

gaja yodh

কারণ বোমা হামলার মধ্যে মৃতদের কবর দেওয়া সম্ভব হয়নি।

ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, জায়গা অথবা সুযোগের অভাবে মৃতদের দাফন করতে না পারায়, সেগুলোতে পচন ধরছে।

ডব্লিউএইচও আরও বলেছে, বিদ্যুৎ বিভ্রাট ও জ্বালানির সংকটে পড়া হাসপাতালটি ‘প্রায় একটি কবরস্থান’ হয়ে উঠেছে। হুমকির মুখে রয়েছে শিশুরাও।

হাসপাতালটির প্রধান ডাক্তার আহমেদ মুখাল্লাতি বলেছেন, সুবিধার অভাবে বেশ কিছু শিশু ইতোমধ্যেই মারা গেছে।

জ্বালানি ফুরিয়ে যাওয়ার ফলে শিশুদের মৃত্যু ঝুঁকি আরও বাড়ছে।

তিনি আরও বলেছেন, ‘এই পরিস্থিতির মানে হলো, আমরা তাদের একের পর এক মারা যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছি।’

মৃতদেহ থেকে অচিরেই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কাও করেছেন মুখাল্লাতি। বলেছেন, লাশগুলো সব ধরনের ব্যাকটেরিয়া এবং অন্যান্য রোগের বড় উৎস হবে।

হাসপাতালের ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস এর প্রতিনিধিত্বকারী একজন সার্জন একই উদ্বেগ পুনর্ব্যক্ত করেছেন। বলেছেন, ‘পরিস্থিতি খুবই খারাপ। হাসপাতালটিতে ৬০০ জন রোগী এবং ৩৭ জন শিশু রয়েছে।

কিন্তু বিদ্যুৎ, পানি ও খাবার কিছুই নেই। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ভেন্টিলেটর না থাকলে মানুষ মারা যাবে।’

ইসরাইলি বাহিনী হাসপাতালটির আশপাশে বোমাবর্ষণ তীব্র করেছে।

আরও পড়ুন: >>

এমনকি রোগীদের হাসপাতালে আনার চেষ্টাকারী অ্যাম্বুলেন্সগুলোতে অবিরামভাবে আক্রমণ করছে।

হাসপাতালের সামনে অনেক মৃতদেহের পাশাপাশি আহত মানুষ পড়ে রয়েছে। কিন্তু হাসপাতালের ভেতরে আনা সম্ভব হচ্ছে না।

স্থল সেনারা শুক্রবার এটি ঘেরাও করার পর থেকে অবরোধ অব্যাহত রেখেছে।

হাসপাতালের গেটের কয়েক মিটারের মধ্যে ইসরাইলি ট্যাংক ও সাঁজোয়া যান অবস্থান নিয়েছে বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার পর্যন্ত গত তিন দিনে, ইসরাইলি স্নাইপারদের হামলার ভয়ে কেউ হাসপাতালে ঢুকতে বা বাইরে যেতে পারেনি।

এদিকে হাসপাতালটির নিচে হামাসের একটি ভূগর্ভস্থ টানেল রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ইসরাইলি সেনারা বলেছে, মাটির নিচে থেকে হামাস কমান্ড ও কন্ট্রোল সেন্টার পরিচালনা করছে। কিন্তু হামাস ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তা অস্বীকার করেছে।

ডব্লিউএইচওর মুখপাত্র ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডমায়ার জানিয়েছেন, ‘হাসপাতালের আশপাশে মৃতদেহ আছে।

সেগুলো নজরদারি করা যাচ্ছে না। কবর দেওয়া যাচ্ছে না। এমনকি কোনো মর্গেও নেওয়া যাচ্ছে না।’

আরও পড়ুন:

মুখাল্লাতি হত্যাকাণ্ড বন্ধ করার এবং রোগীদের সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়ার অনুমতির জন্য নিরাপদ ও গ্যারান্টিযুক্ত করিডোর দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

২ মাস পর আবার কিয়েভে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালালো রাশিয়া

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আজ শনিবার (১১ নভেম্বর) ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে ফের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। প্রায় দুই মাস বিরতির পর এই হামলা চালানো হয়।

চলতি শীতে ইউক্রেনে নতুন করে হামলা শুরু করল রাশিয়া।

rassia-ucraine

গত বছরও ইউক্রেনের জ্বালানি স্থাপনাসহ কিছু জায়গায় হামলা চালায় মস্কো। এতে ইউক্রেনের কিছু অঞ্চল অন্ধকারে পরিনত হয়।

কিয়েভের সামরিক প্রশাসনের প্রধান সের্গি পপকো বলেছেন, ৫২ দিনের দীর্ঘ বিরতির পর শত্রুরা কিয়েভের ওপর আবার নতুন করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করেছে।

তিনি বলেন, শনিবার সকালের দিকে কিয়েভকে লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রাশিয়া।

আরও পড়ুন:

সম্প্রতি ইউক্রেনে অভিযান জোরালো করেছে রাশিয়া। অন্যদিকে প্রায় থমকে গেছে ইউক্রেনের পাল্টা হামলা।

ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পরই বেকায়দায় রয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। কারণ পশ্চিমাদেশগুলোসহ বিশ্বের নজর এখন মধ্যপ্রাচ্যে।

জম্মু-কাশ্মীরে হাউসবোটের আগুনে ৩ বাংলাদেশি নিহত

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আজ শনিবার (১১ নভেম্বর) ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরে অবস্থিত ডাল হ্রদে হাউসবোটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এতে বাংলাদেশের তিন পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয় পুলিশ জানান।

dal rod

পুলিশ জানায়, সকালে একটি বিশাল অগ্নিকাণ্ডে হ্রদের বেশ কয়েকটি হাউসবোট ছাই হয়ে যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর মরদেহগুলো পাওয়া যায়।

অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়া সাফিনা হাউসবোটে তিন বাংলাদেশি পর্যটক ছিলেন।

ফায়ার সার্ভিসের সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সময় শনিবার ভোর সোয়া ৫টা নাগাদ ডাল হ্রদের ৯ নম্বর ঘাটের কাছে একটি হাউসবোটে আগুন লাগলে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে এবং অন্য হাউসবোটগুলোকে গ্রাস করে।

আরও পড়ুন:

অগ্নিকাণ্ডে অন্তত পাঁচটি হাউসবোট ধ্বংস হয়েছে এবং আরও কিছু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এ ছাড়া আগুন লাগার কারণ এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে। তদন্ত চলছে।

২৪ ঘন্টায় ইসরায়েলের বোমা হামলায় ২৪৩ ফিলিস্তিনি নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গত ২৪ ঘন্টায় ইসরায়েলের বোমা হামলায় ২৪৩ ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছে। তারা ফিলিস্তিনের স্থল, নৌ ও আকাশ পথে অব্যাহত বোমা হামলা চালাচ্ছে। গত মাসের ৭ তারিখ থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ১১ হাজার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

জাতিসংঘ থেকে জানা গেছে, গত ২৪ ঘন্টায় গাজায় স্থল অভিযানে আরও দুই ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছেন।

সবচেয়ে জনবহুল এলাকা গাজা সিটির ভেতরে হামাস ও ইসরায়েলি বাহিনীর তুমুল লড়াই চলছে। এবং এই এলাকার কাছেই রয়েছে আল-কুদস হাসপাতাল ।

আরও পড়ুন>> বায়ুদূষণে বিপর্যস্ত পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশ

palestine-war-dead-newsasia24-chield

গাজার বোমা হামলার পর থেকে আল-কুদস হাসপাতালে আশ্রয় নেন হাজার হাজার মানুষ। ওই হাসপাতালের আশপাশে বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েলি বাহিনী।

তবে বর্তমানে ওই হাসপাতালে কতজন মানুষ আশ্রয় নিয়েছে নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।

তবে, আশঙ্কা করা হচ্ছে, গাজায় হামাসের শক্ত অবস্থানগুলোতে যে কোনো সময় স্থল হামলা চালাতে পারে ইসরায়েলি বাহিনী।

আরও পড়ুন:

বায়ুদূষণে বিপর্যস্ত পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশ

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: দিল্লির পর বায়ুদূষণে নাকাল পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশ।

ভারতের দিল্লির মতো এবার বায়ুদূষণের কবলে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশ।

এমন পরিস্থিতিতে পাঞ্জাবে চার দিনের ছুটি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

পাঞ্জাবের প্রধান নির্বাহী জানিয়েছেন, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে রোববার পর্যন্ত ছুটি পালন শুরু হবে। এতে দূষণের পরিমাণ কমতে পারে।

এয়ার কোয়াটি ইনডেক্সর তালিকায় সবথেকে বেশি স্কোর নিয়ে প্রথম স্থানে রয়েছে পাঞ্জাবের রাজধানী লাহর।

আরও পড়ুন:

অতিরিক্ত দূষণের কারণে সেখানের স্কোর ৩৭৭। অন্যদিকে ৩৫৩ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি, যা স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

প্রতিবছরই দীপাবলির সময় দূষণে ঢাকে দিল্লি। নভেম্বর মাস পড়তে না পড়তেই দূষণ শরু হয়।

বিমানবন্দরে চার বছর বয়সী এক শিশুকে জিম্মি

নিউজে এশিয়া২৪ ডেস্ক: জার্মানির উত্তরাঞ্চলীয় শহর হামবুর্গের বিমানবন্দরে চার বছর বয়সী এক শিশুকে জিম্মি করে তার নিজ বাবা।

সেখানে বিমান চলাচল স্থগিত রয়েছে। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে টার্কিশ এয়ারলাইন্সসহ বেশ কয়েকটি বিমানের যাত্রীদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে৷ বিমানবন্দরের টার্মিনাল বিল্ডিং থেকেও সবাইকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

shishu jimmi

হামবুর্গ বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রবিবার(৫নভেম্বর) প্লেন চলাচল বন্ধ থাকায় প্রায় সাড়ে ৩৪ হাজার যাত্রী ভোগান্তিতে পড়েছে। এদিন ২৮৬টি ফ্লাইট নির্ধারিত ছিল।

শনিবার(৪নভেম্বর) রাতে অস্ত্রধারী এক ব্যক্তি নিজের গাড়িতে মেয়েকে নিয়ে বিমানবন্দরে ঢুকে পড়েন। ধারণা করা হচ্ছে, নিজের চার বছর বয়সী মেয়েকেই জিম্মি করেছেন তিনি।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, অস্ত্রধারী ব্যক্তির সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

পরিস্থিতি সামাল দিতে জার্মানির বিশেষ বাহিনী এসডাব্লিওএটির সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

এক্সে পুলিশ জানায়, ‘অভিযান চলছে। গাড়িতে থাকা ব্যক্তির সঙ্গে আমাদের আলোচক দল যোগাযোগ করছে।’

বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানান, পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত হামবুর্গ বিমানবন্দরে সকল প্লেন চলাচল বন্ধ থাকবে।

ইতোমধ্যে বিমানবন্দরের দিকে চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন:

তার স্ত্রী পুলিশকে শিশু অপহরণের বিষয়ে এবং এর কিছুক্ষণ পরই অভিযুক্ত বিমানবন্দরে প্রবেশ করেন।

পুলিশ জানায়, বিমানবন্দরে প্রবেশের সময় ওই ব্যক্তি বাতাসে দুই রাউন্ড গুলি এবং মলটোভা ককটেল নিক্ষেপ করেন।

তারপর টার্কিশ এয়ারলাইনসের বিমানের পাশে গিয়ে অবস্থান নেন।

খেলা আর না হলে জিতবে পাকিস্তান

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩০০ বলে ৪০২ রানের টার্গেট করতে নেমে ২১.৩ ওভারে ১ উইকেটে ১৬০ রান করে জয়ের পথেই ছিল পাকিস্তান।

এরপর শুরু হয় বৃষ্টি। বৃষ্টির আগে জয় পেতে হলে পাকিস্তানকে ১৫০ রান করতে হতো। ১০ রানে এগিয়ে থাকায় বৃষ্টির কারণে খেলা শুরু না হলে পাকিস্তানই জয় পেত।

bissokap khela

দীর্ঘ সময় খেলা বন্ধ থাকার পর আবার খেলা শুরু হয়। খেলা শুরু হলে পাকিস্তানের নতুন টার্গেট দেওয়া হয় ৪১ ওভারে ৩৪২ রান।

২৫.৩ ওভারে পাকিস্তানের সংগ্রহ ১ উইকেটে ২০০ রান। এরপর দ্বিতীয় দফায় শুরু হয় বৃষ্টি।

তার মানে প্রথম বার বৃষ্টির পর ৪ ওভারেই পাকিস্তান ৪০ রান করে ।

দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টি শুরু হওয়ায় খেলা বন্ধ রয়েছে। যদি আর খেলা মাঠে না গড়ায় তাহলে জিতবে পাকিস্তান। তারা ২১ রানে এগিয়ে রয়েছে।

আরও পড়ুন:

বিশ্বকাপের ১৩তম আসরের ৩৫তম ম্যাচে মুখোমুখি পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড। দুই দলের জন্যই ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ। সেমিফাইনালে যেতে হলে দুই দলের জয়ের প্রয়োজন।

নিউজিল্যান্ডের চেয়ে বেশি বিপদে রয়েছে পাকিস্তান। আজকের ম্যাচের আগে ৭ খেলায় ৮ ও ৬ পয়েন্ট করে নিয়ে চতুর্থ ও ষষ্ঠ পজিশনে রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তান।