শিরোনাম

জাতীয়

তফসিল ঘোষনা করলেন সিইসি (ভিডিও)

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক:  তফসিল ঘোষণা উপলক্ষ্যে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।  বিস্তারিত ভিডিওতে……

তফসিল ঘোষনা করলেন সিইসি

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: জাতির উদ্দেশে তফসিল ঘোষনা করলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

আজ বুধবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টায় বিটিভিতে সরাসরি সম্প্রচারে এ ঘোষনা দেন তিনি।

ঘোষনায় তিনি বলেন, আগমাী ২০২৪ সালের জানুয়ারি মাসের ৭ তারিখ (রবিবার) জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এতে রিটার্নিং অফিসার রয়েছেন ৬৬ জন এবং ৫৯২ জন সহকারী রিটার্নিং অফিসার রয়েছেন। মনোয়োন পত্র দাখিলের শেষ তারিখ আগামী ৩০ নভেম্বর। মনোয়োন পত্র বাছাই হবে ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকে ৪ তারিখ পর্যন্ত।

তিনি আরও বলেন, রিটার্নিং অফিসারের আদেশের বিরুদ্ধে কমিশনের আপিল দায়ের ও নিষ্পত্তি হবে আগামী ডিসেম্বরের ৬ তারিখ থেকে ১৫ তারিখ পর্যন্ত। প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ আগামী ডিসেম্বরের ১৭ তারিখ এবং প্রতীক বরাদ্ধ করা হবে ডিসেম্বরের ১৮ তারিখে।

আরও পড়ুন: 

নির্বাচনী প্রচারনা চলবে আগামী ডিসেম্বরের ১৮ তারিখ থেকে ২০২৪ সালের জানুয়ারী মাসের ৫ তারিখ সকাল ৮ টা পর্যন্ত। ভোট গ্রহণ হবে ২০২৪ সালের জানুয়ারী মাসের ৭ তারিখে।

পরিশেষে, তিনি সবার কাছে সহযোগীতা কামনা করে বলেন, ভোট গ্রহণ যাতে সবার অংশ্গ্রহণমূলক এবং উৎসব মুখর হয়। কোন প্রকার অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যেন না ঘটে।

 

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

আজ তফসিল ঘোষনা; ভাষণ দেবেন সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ বুধবার (১৫ নভেম্বর) দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে। আজ তফসিল ঘোষণা উপলক্ষ্যে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

Bangladesh-Election-Commission-habibul-awal-newsasia24
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল

জানা গেছে, আজ সকাল ১০টায় ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম সংবাদ সম্মেলন করবেন । বিকেল ৫টায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিশন বৈঠকে বসবে। পরবর্তিতে সন্ধ্যা ৭টায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন সিইসি। ওই ভাষণেই তফসিল সংক্রান্ত ঘোষণা দেওয়া হবে।

তফসিল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে আগারগাঁওয়ে কমিশন ভবন ও এর আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এছাড়া কমিশন ভবনে এনআইডি সংশোধনের জন্য ব্যক্তিগত শুনানি মঙ্গলবার থেকে বন্ধ করা রয়েছে।

আরও পড়ুন: 

এর আগে ইসি সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেছিলেন, কবে, কখন, কীভাবে তফসিল ঘোষণা হবে তা নভেম্বরের প্রথমার্ধের শেষ দিন অর্থাৎ বুধবার সকালে গণমাধ্যমে জানানো হবে।

নভেম্বরের প্রথমার্ধে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের তফসিল দেওয়ার কথা আগে থেকেই জানিয়ে আসছিল নির্বাচন কমিশন। সেক্ষেত্রে ১৫ নভেম্বর বুধবারই তফসিল ঘোষণা করা হবে কি না জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, সব কিছুর বিষয়ে বুধবার জানিয়ে দেব।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

write-earn-newsasia24

Follow

বিজয়ীদের হাতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দিলেন প্রধানমন্ত্রী

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুণী শিল্পীদের হাতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার তুলে দিয়েছেন।

এ বছর ২৭ ক্যাটাগরিতে মোট ৩২টি পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

colocitro puroshkar

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়েছে অভিনেতা খসরু (বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুল আলম খান খসরু) ও অভিনেত্রী রোজিনাকে (রওশন আর রোজিনা)।

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার যুগ্মভাবে পেয়েছে ‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’ ও ‘পরাণ’। প্রধান চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হয়েছেন সুচিন্ত্য চৌধুরী (চঞ্চল চৌধুরী)। ‘হাওয়া’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য তিনি এই পুরস্কার পেয়েছেন।

আর প্রধান চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন জয়া আহসান ও রিকিতা নন্দিনী শিমু। যথাক্রমে ‘বিউটি সার্কাস’ ও ‘শিমু’ সিনেমার জন্য তারা এ পুরস্কার পেয়েছেন।

শ্রেষ্ঠ পরিচালকের পুরস্কার পেয়েছেন সৈয়দা রুবাইয়াত হোসেন। ‘শিমু’ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি এ পুরস্কারটি পেয়েছেন।

এছাড়া পার্শ্ব চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হয়েছেন মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন খান, শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হয়েছেন আফসানা করিম (আফসানা মিমি)। ‘পরাণ’ ও ‘পাপ-পুণ্য’র জন্য তারা এ সম্মানে ভূষিত হয়েছেন।

শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের পুরস্কার পেয়েছে এস. এম. কামরুল আহসানের ‘ঘরে ফেরা’। আর শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র হয়েছে ড. এ জে এম শফিউল আলম ভূইয়ার ‘বঙ্গবন্ধু ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’।

খল চরিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হয়েছেন সুভাশিষ ভৌমিক, ‘দেশান্তর’ সিনেমার জন্য। আর শ্রেষ্ঠ কৌতুক চরিত্রে পুরস্কার পেয়েছেন সাইফুল ইমাম (দিপু ইমাম), ‘অপারেশন সুন্দরবন’ চলচ্চিত্রের জন্য।

যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী হয়েছে যথাক্রমে ‘রোহিঙ্গা’ ও ‘বীরত্ব’ সিনেমার জন্য বৃষ্টি আক্তার ও মুনতাহা এমিলিয়া। শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক মাহমুদুল ইসলাশ খান (রিপন খান), ‘পায়ের ছাপ’ চলচ্চিত্রের জন্য।

শ্রেষ্ঠ গায়ক শুভাশীষ মজুমদার বাপ্পা (বাপ্পা মজুমদার)। ‘অপারেশন সুন্দরবন’-এ ‘এ মন ভিজে যায়…’ গানের জন্য তাকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। শ্রেষ্ঠ গায়িকা হয়েছেন আতিয়া আক্তার আনিসা। শ্রেষ্ঠ গীতিকার রবিউল ইসলাম জীবন ও শ্রেষ্ঠ সুরকার শওকত আলী ইমন।

আরও পড়ুন:

আজকের অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

সম্প্রীতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার ঠাঁই নাই

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: তরুণ প্রজন্মকে সাবধান করে কথাসাহিত্যিক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, রাজাকারদের মন্ত্রী বানানোর মতো ভুল আর করা যাবে না ।

আজ মঙ্গলবার(১৪নভেম্বর) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত ‘সম্প্রীতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার ঠাঁই নাই’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

d.jafor ikbal

নতুন প্রজন্মকে উল্লেখ করে জাফর ইকবাল বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের পর বাংলাদেশে একটা সত্যিকারের রেনেসাঁ, একটা সাংস্কৃতিক বলয় গড়ে উঠেছিল। আমরা ভেবেছিলাম, আগের সেই সাম্প্রদায়িকতা, হানাহানি আর ফিরে আসবে না।

কিন্তু কিছুদিন পরেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করলো, মুক্তিযুদ্ধে কি এত মানুষ মারা গেছে? রাজাকারদের গাড়িতে মন্ত্রীর পতাকা তুলে দেওয়া হলো। আমাদের আর এমন ভুল করা চলবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা যে বাংলাদেশ তৈরির জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম, তা বাস্তবায়নের জন্য তরুণ প্রজন্মকে সম্প্রীতির বাংলাদেশের চেতনাকে ধারণ করতে হবে।’

আলোচনায় সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া বলেন, ‘দেশে সম্প্রীতি বারবার নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

কখনও ধর্মের নামে কখনও রাজনীতির নামে। সামনে নির্বাচন। নির্বাচনের এলেই আমরা ভয়ে থাকি।

আইনজীবী ড. ফারজানা মাহবুব বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং নারীর অধিকার না থাকলে গণতন্ত্র টেকসই হয় না।

ধর্মনিরপেক্ষতা এবং বাঙালি জাতীয়তাবাদকে তৃণমূলের ছড়িয়ে দিতে না পারলে সাম্প্রদায়িকতা শেষ হবে না।

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর এ দুটো জিনিস বাংলাদেশের সংবিধান থেকে মুছে ফেলা হয়েছিল।

এরপর থেকেই ধর্মকে রাজনীতির জন্য ব্যবহার শুরু হয়। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে ধর্মনিরপেক্ষতার অপব্যাখ্যা দিয়ে যুব সমাজকে বিভ্রান্ত করা হয়েছে।’

সভাপতির বক্তব্যে সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা এবং অসাম্প্রদায়িক সমাজ বিনির্মাণে একাত্তরকে আমরা রাজনৈতিক এবং সামাজিকভাবে প্রমিথিউসের মতো দাঁড় করাতে পারিনি বলে আজকের এই সংকট।

আরও পড়ুন:

আমারা সম্প্রীতির বাংলাদেশে দাঁড়িয়ে বলতে চাই, এখানে সাম্প্রদায়িকতার কোনও ঠাঁই নাই।

এ অবস্থায় আমরা যদি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, সাংস্কৃতিক জাগরণ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি তাহলে আমাদের গণতন্ত্র শক্তিশালী হবে।’

গোলটেবিল সঞ্চালনা করেন অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল।

পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের প্রতি ডিএমপি’র ১০টি নির্দেশনা

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের বেশকিছু নির্দেশনা দিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান। রবিবার (১২ নভেম্বর) ডিএমপি সদরদপ্তরের এক বৈঠকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের প্রতি নির্দেশনা-

১. প্রতিটি স্টপেজে বাসের এবং যাত্রীদের ছবি তুলে রাখতে হবে।

২.যেখান সেখান থেকে অর্থাৎ স্টপেজ ছাড়া কোনো যাত্রী উঠানো যাবে না এমনকি নামানো যাবে না।

৩. কন্ডাক্টর যাত্রীদের বিভিন্ন বিষয় সচেতন করবেন।

৪. রাতে যেখানে সেখানে বিচ্ছিন্নভাবে বাস পার্কিং না করে, কোনো উন্মুক্ত স্থানে অনেকগুলো বাস একসাথে রাখতে হবে। সেখানে নিজস্ব পাহারার মাধ্যমে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে।

৫. বাসে রেখে ড্রাইভার ও হেলপার কখনই একই সাথে বিশ্রামেবো খেতে যাবেন না।

৬. যারা নাশকতাকারীদের সম্পর্কে তথ্য দিতে পারবেন তাদের জন্য বিশেষ পুরস্কারের ব্যবস্থা রয়েছে।

৭. ড্রাইভারকে একা বাস পরিচালনা করতে দেওয়া যাবে না। তার সাথে হেলপার থাকবে এবং ও অতিরিক্ত ব্যক্তি থাকতে হবে।

আরও পড়তে পারেন:>> খোকসায় দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ১

৮. রাতে বাসের মধ্যে ঘুমানো যাবে না। একজন হলেও পাহারার ব্যবস্থা করতে হবে।

৯. একটি বাসে যদি দুইটি দরজা থাকে সেক্ষেত্রে পিছনের দরজাটি অবশ্যই বন্ধ রাখতে হবে।

১০. মালিকপক্ষ সবাই ড্রাইভার ও হেলপারদের অবশ্যই নিরাপত্তা সংক্রান্তে নির্দেশনা প্রদান করতে হবে এবং যাত্রীদের জন্য সর্তকর্তার জন্য প্রতিটি বাসে স্টিকার লাাগাতে হবে।

write-earn-newsasia24

অন্যদিকে, আজ সোমবার (১৩ নভেম্বর) সকাল ৬টা থেকে বিএনপি ও সমর্থক দলগুলোর চতুর্থ দফায় ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ চলছে।

২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশ পণ্ড ও নেতাকর্মীদের গ্রেফতার এবং সরকারের পদত্যাগের দাবিতে এ অবরোধ দেওয়া হয়। এই অবরোধে গত কয়েকদিনে বেশ কয়েকটি বাসে আগুন দেওয়া হয় ।

আরও পড়ুন:
google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

চতুর্থ দফায় ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের ডাক দিল বিএনপি

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: চতুর্থ দফায় রবিবার (১২ নভেম্বর) ও সোমবার (১৩ নভেম্বর) ) টানা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের ডাক দিয়েছে বিএনপি।

আজ বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) বিকেলে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে, টানা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের ডাক দিয়েছে বিএনপি।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

bnp

সরকারের পদত্যাগের দাবিতে দেশব্যাপী তৃতীয় দফার অবরোধ কর্মসূচি চলছে।

৪৮ ঘণ্টার চলমান এই অবরোধ আগামীকাল শুক্রবার(১০ নভেম্বর) ভোর ৬টায় শেষ হবে।

শুক্র ও শনিবার- দু’দিনের বিরতি দিয়ে রবিবার ভোর ৬টা থেকে মঙ্গলবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ পালন করবে বিএনপি।

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টিও অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা করেছে।

আরও পড়ুন:

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির সভাপতি অলি আহমদও আগামী ১২ ও ১৩ নভেম্বর সারাদেশে অবরোধের ডাক দিয়েছেন।

একই সঙ্গে তিনি বিএনপির আন্দোলনে থাকা দলগুলোকে অবরোধ কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানিয়েছেন।

৪৮ ঘণ্টার অবরোধ কর্মসূচি পালন করার ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ লেবার পার্টিও।

সহকারী শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা আগামী ১ ডিসেম্বর

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা আগামী ১ ডিসেম্বর ২০২৩ অনুষ্ঠিত হবে।

আজ বুধবার (০৮ নভেম্বর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন এ তথ্য জানান।

primary

তিনি আরও বলেন, প্রথম ধাপে রংপুর, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে ২৪ নভেম্বর প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্রথম ধাপের পরীক্ষা নেওয়ার জন্য তারিখ ঘোষণা করা হয়েছিল।

২৮ ফেব্রুয়ারি রংপুর, সিলেট এবং বরিশাল বিভাগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে অধিদপ্তর।

২২ মার্চ রাজশাহী, খুলনা ও ময়মনসিংহ বিভাগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে অধিদপ্তর।

আবার,১৭ জুন ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

প্রথম ধাপে ৩ লাখ ৬০ হাজার ৭শ, দ্বিতীয় ধাপে ৪ লাখ ৫৯ হাজার ৪৩৮ এবং তৃতীয় ধাপে ৩ লাখ ৪০ হাজার প্রার্থী আবেদন করেন।

বর্তমানে আট হাজারের বেশি পদ শূন্য রয়েছে।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের জট কমাতে বিভাগগুলোকে ভাগ করে নিয়োগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয় জানায়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় চার লাখ চার হাজার সহকারী শিক্ষক রয়েছে। প্রতি বছর প্রায় ছয় হাজারের কাছাকাছি শিক্ষক অবসরে যায়।

আরও পড়ুন:

২০২০ সালের বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নিয়োগ দিতে দুই বছর সময় লেগেছে।

বিভাগ ভিত্তিক নিয়োগ দিতে পারলে ছয় মাসের মধ্যে নিয়োগ দেওয়া সম্ভব বলে মনে করছে মন্ত্রণালয়।

আমি জানি, আমার কোনো সমস্যা নেই

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, আমি জানি, আমার কোনো সমস্যা নেই।

আমি যখন প্রথম নির্বাচন করি তখন আমার এলাকায় ১০টা মোটরসাইকেল ছিল।

আজ সেখানে হাজার হাজার মোটরসাইকেল। আমার এলাকা কৃষিভিত্তিক এলাকা। তাদের কোনো কষ্ট নেই।

tipu munshi

তিনি আরও বলেন, সেখানে নারীরা দিনে তিনবার করে লিপস্টিক লাগাচ্ছেন। চারবার করে স্যান্ডেল বদলাচ্ছেন। আমি জানি, আমার কোনো সমস্যা নেই।’

আজ বুধবার (৮ নভেম্বর) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ন্যাশনাল ট্যারিফ পলিসি মনিটরিং ও রিভিউ কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আরও পড়ুন:

নিত্যপণ্যসহ সব কিছুর দাম বাড়ার প্রভাব নিয়ে তিনি বলেন, প্রভাব কাটানো সম্ভব হবে, যদি আপনারা ইতিবাচক হন।

বৈশ্বিক পরিস্থিতিসহ সার্বিক কারণে দাম বেড়েছে। কাজেই এটিকে বিবেচনায় নিয়ে নির্বাচনে প্রভাব ফেলা ঠিক হবে না।

এটা নির্ভর করে আপনারা কতটুকু ইতিবাচক হবেন তার ওপর।

রণক্ষেত্র গাজীপুর, ৫ পুলিশ সদস্য আহত

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বেতন বৃদ্ধির দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের সাথে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।

আজ বুধবার (৮ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে গাজীপুর নাওজোর এলাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এসময় গাজীপুরের নাওজোড় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

sromik pulish

এ ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এর মধ্যে তিন জনের অবস্থা গুরুতর।

তাদের কে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম জানান, আহতবস্থায় পাঁচজন পুলিশ সদস্যকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।

তাদের মধ্যে গুরুতর আহত পুলিশ সদস্য প্রবীর (৩০), ফুয়াদ (২৮) ও খোরশেদকে (৩০) উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

আশিকুল (২৭) ও বিপুলকে (২৪) হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

গাজীপুরের পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব আলম বলেন, আজ বুধবার (৮ নভেম্বর) শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে মোট আট জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

সকালের সংঘর্ষে তিন ও বিকেলে নাওজোড় এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনা পাঁচজন আহত হয়েছে।

জানা গেছে, শ্রমিকদের নূন্যতম বেতন ২৩ হাজার টাকা করার দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে গাজীপুরের কোনাবাড়ি, কাশিমপুর, সফিপুর ও মৌচাকসহ বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকরা আন্দোলন করে আসছে।

এই কারনে আজ বুধবার (৮ নভেম্বর)সকালে আন্দোলন করে পোশাক কারখানার শ্রমিকরা।

এসময় এক নারী শ্রমিক নিহত হন।

এরপর পরিস্থিতি পুরোই স্বাভাবিক ছিল।

বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে শ্রমিকরা ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের নাওজোড় এলাকায় পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়ায়।

শ্রমিকরা পুলিশের দিকে ইটপাটকেল ছুরতে করতে থাকে। এই সংঘর্ষে পুলিশের পাঁচ সদস্য গুরুতর আহত হন।

একপর্যায়ে পরিস্থিতি খারাপ হয়ে উঠে।

পরে পুলিশের পাশাপাশি বিজিবির সমন্বয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে শ্রমিকরা পিছু হটে।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, পুলিশের এপিসি কারের ভিতর যে পুলিশ সদস্যরা ছিলেন তাদের অসাবধানতায় বিস্ফোরণে কয়েকজন পুলিশ আহত হয়েছেন।

এদিকে, কোনাবাড়ি এলাকায় সকালে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষে এক শ্রমিক নিহত হওয়ার পর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাকি ছিল।

বিকাল ৩টার দিকে ফের শ্রমিকরা রাস্তায় নেমে আসে।

মহাসড়কে উঠার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয় এবং টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

আরও পড়ুন:

শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে।

অপরদিকে, শ্রমিকরা বিকাল সাড়ের ৪টার দিকে চান্দনা চৌরাস্তা-জয়দেবপুর সড়ক দিয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিট কার্যালয়ের দিকে যায়।

এসময় আশপাশের বিভিন্ন পোশাক কারখানায় ঢিল ছুড়ে কারখানাগুলোর জানালার কাঁচ ভাঙচুর করে।

বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শ্রমিকরা জয়দেবপুরের দিকে এগুতে থাকলে পুলিশ টিয়ারসেল ও রাবার সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়ে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।