শিরোনাম

জাতীয়

অর্ধশত নেতাকর্মী তৃণমূল বিএনপিতে যোগদান করেছেন

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বাংলাদেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের অর্ধশত নেতাকর্মী তৃণমূল বিএনপিতে যোগদান করেছেন।

তৃণমূল বিএনপির চেয়ারপারসন শমসের মুবিন চৌধুরী জানিয়েছেন আগামী নির্বাচনে ৩০০ আসনেই তৃণমূল বিএনপির প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ।

trinumul bnp2

আজ বুধবার (৮ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে ‘আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল বিএনপিতে যোগদান ও আলোচনা সভা’য় এ কথা জানান তিনি।

শমসের মুবিন চৌধুরী বলেন, ১৯ সেপ্টেম্বর আমাদের জাতীয় কাউন্সিল হয়।

আজ অসংখ্য নেতাকর্মী তৃণমূল বিএনপিতে যোগদান করেছেন।

এটি প্রমাণ করে যে, বাংলার মানুষ একটি নতুন ধরনের রাজনীতি দেখতে চায়।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে সর্বস্বান্ত হয়ে আজ শ্রমিকরা রাস্তায় বিক্ষোভ করছে।

তিনি আরও বলেন, সামনে নির্বাচন আসছে, আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব। আসন্ন নির্বাচনে আমরা প্রতিটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব।

আমরা আশা করি, নির্বাচন কমিশন তার ক্ষমতা যথাযথ প্রয়োগ করে একটি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করবে। জনগণ ভোট দেবে। আমরা হত্যার রাজনীতিতে বিশ্বাস করি না, সেটি লগি-বৈঠা দিয়ে হত্যা হোক কিংবা পেট্রোল বোমা দিয়ে হত্যা হোক।

অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, আমি আপনাদের অঙ্গীকার দিতে চাই যে, দলের সব সদস্য হবে এই দলের নেতা।

তৃণমূল বিএনপির কাছে তাদের আসতে হবে না। তৃণমূল বিএনপি যাবে তৃণমূলের কাছে। দলীয় কমিটিসহ সব কিছু কেন্দ্রভিত্তিক হবে।

যারা যোগদান করেছেন : সাবেক জেলা ও দায়রা জজ সিরাজুল ইসলাম, জাপা চেয়ারম্যানের সাবেক উপদেষ্টা কর্নেল অবসরপ্রাপ্ত সাব্বির আহমেদ, ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক নেত্রকোনার মোহাম্মদ আলী, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সন্তোষ সারমা।

আরও পড়ুন:

এলডিপি থেকে আসা লস্কর হারুনুর রশিদ, সাভারের অ্যাডভোকেট মাহবুব হাসান তুষার, জয়পুরহাটের মাসুদ রেজা, নরসিংদীর নাজমুল শিকদার, শাহাদাত হোসেন, নেত্রকোনার শওকত তালুকদার, শহিদুল ইসলাম, টাঙ্গাইলের শরিফুজ্জামান খান এবং আরও অনেকে।

অবরোধের প্রথম চিত্র; গাড়ী থাকলেও যাত্রী নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি জামায়াতের ডাকা অবরোধের আজ প্রধম দিন। ৪৮ ঘন্টার অবরোধের বাতাস সর্বব্যাপি লাগতে শুরু করছে।

ঢাকার বিভিন্ন এলাকার ঘুরে দেখা গেছে, সকাল থেকে লোকাস বাস, সিএনজি, রাইড শেয়ারিং মোটর সাইকেল স্বাভাবিকভবে চলাচল করছে। তবে ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা খুবই কম।

তবে, ছাড়ছে না দূর পাল্লার বাস। পরিবহন সংশ্লিষ্ট থেকে জানা গেছে, সড়কে গাড়ি থাকলে যাত্রী না থাকার কারনে দূর পাল্লার গাড়ি বন্ধ রয়েছে। তবে, এখন পর্যন্ত দু একটিা পরিবহন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যেতে দেখা গেছে।

selfi-bus-oborodh-newsasia24

বাসের এক চালক নিউজ এশিয়া২৪ কে জানান, “রাস্তায় ঝুঁকি থাকলেও পেটের দায়ে বের হয়েছি। কোন যাত্রী নাই। বাস কখন ভরবে আর কখন ছাড়বে আল্লাহ’ই জানে। মানুষতো ভয়ে ঘর থেকে বের হচ্ছে না। কিন্তু আমাদের তো বউ পোলাপান আছে। আমাদের তো ঘরে বসে থাকলে চলবে না।”

গুলিস্তানে এক যাত্রী নিউজ এশিয়া২৪কে বলেন, আজ দেরি করে বের হয়েছি, ভেবেছিলাম আজ আর গাড়ি পাবো না। কিন্তু বের হয়ে দেখি গাড়ির অভাব নাই।

আরও পড়ুন: 

সকাল ৯টার দিকে টিকাটুলিতে সালাউদ্দিন হাসপাতালের সামনে, গাড়ির যানজট দেখা গেছে।

তবে গাড়ির সংখ্যা থাকলেও যাত্রীর সংখ্যা খুবই কম।

bus-terminal-oborodh-newsasia24

একজন বাস শ্রমিক নিউজ এশিয়া২৪ কে জানিয়েছেন, চট্টগ্রাম, বরিশাল, কুমিল্লা ও সিলেট দু-একটি বাস চললেও মালিকরা ভরে বাস নামাতে চাচ্ছেন না। অপরদিকে যাত্রীও নেই। তাই সায়েদাবাদ থেকে বাস চলাচল প্রায়ই বন্ধ।

নেতাকর্মী নিয়ে সুধী সমাবেশে জাহাঙ্গীর আলম

মারুফ সরকার: মেট্রোরেলে উদ্বোধনের মহেন্দ্রক্ষণ উপভোগ এবং সুধী সমাবেশ আরও সাফল্যমণ্ডিত করতে নেতাকর্মীর বহর নিয়ে ঢাকায় এসেছিলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম সরকার।

কুমিল্লা থেকে দলীয় নেতাকর্মী নিয়ে ঢাকায় আসেন তিনি।

metro rail

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বর্তমান সরকার সারা দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় পরিবর্তন নিয়ে আসার পাশাপাশি ঢাকার পরিবহন সেক্টরে ও আমূল পরিবর্তন এনে দিয়েছে।

আজ (৭নভেম্বর) আগারগাঁ থেকে মতিঝিল অংশের উদ্বোধনের মাধ্যমে ঢাকার বড় একটি অংশের নাগরিকরা মেট্রোরেলের সুবিধার আওতায় আসবে।

এই উদ্বোধনের দিন আমাদের জন্য একটি উৎসবের উপলক্ষ। এই উপলক্ষকে আরও রাঙিয়ে দিতে আমরা এখানে হাজির হয়েছি।

ছাত্র জীবন থেকেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত জাহাঙ্গীর আলম।

আরও পড়ুন:

তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার ক্রীড়া সম্পাদক, আবাহনী ক্রীড়া চক্রে সাধারণ সম্পাদক এবং ১৯৮৫ সালে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

এ ছাড়া ২৭ র্বছর ধরে তিনি কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

বিএনপি নেতারা ‘কাপুরুষ’

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বিএনপি নেতাদের ‘কাপুরুষ’ আখ্যা দিলেন ওবায়দুল কাদের।

৭ নভেম্বরকে বিএনপির ‘উত্থান দিবস’ দাবি করে নিজেদের এই জাতীয় দিবসে কর্মসূচি স্থগিত করায় বিএনপি নেতাদের ‘কাপুরুষ’ আখ্যা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পবিরহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

kapurosh akkha

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই কর্মসূচি স্থগিতের মধ্য দিয়ে বিএনপির আন্দোলনের সাহস দেখা হয়ে গেল।

আজ ৭ নভেম্বর আওয়ামী লীগ ঘোষিত ‘মুক্তিযোদ্ধা সৈনিক হত্যা দিবস’র আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আজ ৭ নভেম্বর বিএনপির জাতীয় দিবস। এদিন তাদের উত্থানের দিন।

বিএনপির জাতীয় দিবসে কর্মসূচি স্থগিত করায়ওবায়দুল কাদের বলেন , তাদের মত ভীতু কাপুরুষ হয়? এই কাপুরুষদের রাজনীতি করা মানায়?

বিএনপির আন্দোলনের সাহস এখানেই তো দেখা গেল। তাদের দল কেন করবে মানুষ?

আজ ৭ নভেম্বর দিনটিকে ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ হিসেবে পালন করে বিএনপি।

তবে সরকারের দমন-পীড়নের প্রতিবাদে এ বছর দিবসটি ঘিরে দলীয় সব কর্মসূচি স্থগিত করেছে বিএনপি।

আজ ৭ নভেম্বরের আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, এদিন আমরা মুক্তিযোদ্ধা হত্যার দিন পালন করি, ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ রক্তাক্ত কলঙ্কজনক দিনগুলোর একটি ৭ নভেম্বর।

এদিন সিপাহী জনতার অভ্যুত্থানের নামে কর্নেল তাহের ক্যান্টনমেন্টে বন্দি জিয়াউর রহমানকে উদ্ধার করে। ফলাফলে জিয়া কর্নেল তাহেরকে হত্যা করে।

তিনি বলেন, জিয়ার উত্তরসূরিরা আজও বাংলাদেশে হত্যা ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি বহন করে চলেছে। বাংলাদেশের রাজনীতিকে তারা কলুষিত করেছে।

খালেদা-তারেক আগুন সন্ত্রাসের সূচনা করেছে। তারা সারাদেশে রক্তের বন্যা বইয়ে দিয়েছিল। এখন কোথায় তারা? তাদের বাড়াবাড়ি কই গেল?

২৮ অক্টোবরের ঘটনার ব্যঙ্গ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ২৮ অক্টোবর যখন দেখলো ঘটনা খারাপ, মির্জা ফখরুল লাফ দিয়ে নিচে নেমে গেল।

এদিক-ওদিক তাকায়, কাউকে পায় না। বেচারা দিশেহারা হয়ে দৌড় দিয়েছে।

এ দৌড় ডেমরার সালাহ উদ্দিনকে (২০০৬ সালের ৫ মে বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদের দৌড়কাণ্ড) হার মানিয়েছিল।

আরও পড়ুন:

পরে কয়েকজন মির্জা ফখরুলকে ধরে এনেছে। মাইক বন্ধ, হ্যান্ড মাইকে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।
বিএনপি বলেছিল, শেখ হাসিনা পালাচ্ছেন।

অথচ, আপনারা কে কোথায় এখন? কেউ কারাগারে। কেউ পালিয়েছেন। শেখ হাসিনাকে হটাবেন? শেখ হাসিনাকে হটাতে গেলে আপনারাই হটে যাবেন।

বিএনপি একদিন বিরতি দিয়ে ফের ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের ডাক দিয়েছে

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বিএনপি একদিন বিরতি দিয়ে ফের ৪৮ ঘণ্টার দেশব্যাপী সর্বাত্মক অবরোধের ডাক দিয়েছে।

বুধবার(৮নভেম্বর) ভোর ৬টা থেকে শুক্রবার(১০ নভেম্বর) ভোর ৬টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে।

সোমবার (৬ নভেম্বর) বিকেলে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সংবাদ সম্মেলনে নতুন এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

bnp

‘বিপ্লব ও সংহতি’ দিবস উপলক্ষে আগামীকাল ৭ নভেম্বর অবরোধ কর্মসূচিতে বিরতি দিয়েছেন বিএনপি ।

সমমনা রাজনৈতিক দলগুলোও যুগপৎভাবে এ কর্মসূচি পালন করবে।

এর আগে এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট অলি আহমদ (বীর বিক্রম) বলেন, এলডিপির সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও দেশবাসীর প্রতি আমার অনুরোধ আপনারা নিজ নিজ এলাকায় আন্দোলনরত দলগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করে আগামী অবরোধ কর্মসূচি সফল করুন।

তিনি আরও বলেন, গত ৫ ও ৬ নভেম্বর দেশব্যাপী আন্তরিকতার সঙ্গে অবরোধ সফলভাবে পালন করায় দেশবাসীর প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও জ্ঞাপন করছি।

আরও পড়ুন:

এ সরকারকে বিদায় করতে হবে। দেশের সার্বভৌমত্ব ও সাংবিধানিক অধিকার ফিরিয়ে আনুন।

সাধারণ জনগণের প্রতি অনুরোধ আপনারা গাড়িগুলো রাস্তায় বের না করে আমাদের কর্মসূচি সফল করার জন্য সাহায্য করুন।

অবরোধ কর্মসূচির ৩০ ঘণ্টায় ১৮ গাড়িতে আগুন

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বিএনপি ও জামায়াতের অবরোধ কর্মসূচির ৩০ ঘণ্টায় দেশব্যাপী ১৮টি গাড়িতে অগ্নিসংযোগের খবর পেয়েছে ফায়ার সার্ভিস ।

গতকাল রবিবার (৫ নভেম্বর) সকাল ৪ থেকে আজ সোমবার (৬ নভেম্বর) সকাল ১০টা পর্যন্ত এসব অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

buse agun

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৩৬টি ইউনিট ও ২১৬ জন সদস্য এসব আগুন নির্বাপণ করে। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, অবরোধের ৩০ ঘণ্টায় রাজধানীতে ১০টি সহ ঢাকা বিভাগে ১৪টি এবং চট্টগ্রাম বিভাগে ৪টি গাড়িতে আগুন দেওয়া হয়। এর মধ্যে ১৩টি বাস, ২টি ট্রাক, ১টি প্রাইভেটকার, ১টি সিএনজি, ১টি লেগুনা পুড়ে যায়।

এই ১৮টি অগ্নিকাণ্ড নির্বাপণ করতে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ৩৬টি ইউনিট কাজ করে।

আরও পড়ুন:

রবিবার (৫ নভেম্বর) দিবাগত রাত ২টা ১১ মিনিটে গাজীপুরে বাসে আগুন, সোমবার ভোর ৫টা ৫ মিনিটে চট্টগ্রামে বাসে আগুন, ৫টা ১৮ মিনিটে গাজীপুরের সফিপুরে বাসে আগুন, ৫টা ৪৫ মিনিটে চট্টগ্রামে সিএনজিতে আগুন এবং ৫টা ৪৮ মিনিটে বাংলাদেশ ব্যাংকের পাশে ট্রাকে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পবিত্র ওমরাহ পালন

জাহিদুল ইসলাম, সৌদি থেকে: মক্কায় পবিত্র ওমরাহ পালন করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৬ নভেম্বর) ভোরে তিনি পবিত্র মক্কায় কাবাঘর তাওয়াফ করেন। এসময় তার সাথে ছিলেন ছোট বোন শেখ রেহানা এবং অন্যান্য সফরসঙ্গীরা।

এরপর তিনি মসজিদুল হারামে নামাজ আদায় করেন।

seikh-hasina-ummrah-newsasia24 2

এসময় বিশেষ মোনাজাতে বাংলাদেশের জনগণ এবং মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করেন। এরসাথে বাংলাদেশের অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ওমরাহ পালন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা এবং প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান ।

আরও পড়ুন: 

পরে প্রধানমন্ত্রী ফজরের নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করেন মসজিদুল হারামে।

এর আগে শেখ হাসিনা হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর পবিত্র রওজা মোবারক জিয়ারত করেন ।

পরে মসজিদে নববিতে আসর ও মাগরিবের নামাজ আদায় করেন।

আরও পড়তে পারেন:

খোকসায় আন্তঃনগর ট্রেন যাত্রা বিরতির দাবিতে মানববন্ধন

নাজমুল হাসান: পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ও বোনাপোল এক্সপ্রেস আন্তনগর ট্রেন দুটির খোকসা ষ্টেশন থেকে যাত্রী পরিবহনের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

আজ রবিবার(৫নভেম্বর) সকালে খোকসা রেল ষ্টেশনের প্লাটফর্মে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

খুলনা থেকে ছেড়ে আসা সুন্দরবন এক্সপ্রেস ও বেনাপোল স্থল বন্দর থেকে ছেড়ে আসা বেনাপোল এক্সপ্রেস আন্তঃনগর ট্রেন দুইটি পদ্মা সেতু হয়ে রাজধানী ঢাকায় যাতায়াত করে।

এই ট্রেন দুটির আপ ও ডাউনের সময় খোকসা ষ্টেশন থেকে যাত্রী পরিবহনের দাবিতে এ মানববন্ধন করা হয়।

এসময় বক্তারা দাবি করেন, খুলনা বিভাগের শেষ রেল স্টেশন খোকসা। এটি রেলওয়ের ব্যবসা সফল ষ্টেশন।

এই ষ্টেশনের উপর দিয়ে পদ্মা সেতু হয়ে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা সুন্দরবন এক্সপ্রেস ও বেনাপল স্থল বন্দর থেকে ছেড়ে আসা বেনাপোল এক্সপ্রেস আন্তঃনগর ট্রেন দুইটি রাজধানী ঢাকায় যাতায়াত করে।

আরও পড়ুন:

কিন্তু খোকসা ষ্টেশনে যাত্রাবিরত ও যাত্রী পরিসেবা নাই। তারা যাত্রী পরিসেবা চালুর দাবি করেন।

খোকসা বাসীর ব্যানারে কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আরিফুল আলম তসর, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জিল্লুর রহমান, উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা খোকন খন্দোকার প্রমুখ। এসময় সঞ্চালনা করেন সেলিম খন্দোকার।

শ্রীমঙ্গলে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: শ্রীমঙ্গলে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করলেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

সারা দেশে বিএনপির ডাকা ৪৮ ঘণ্টার টানা অবরোধের প্রথম দিনে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করেছে বিএনপির নেতাকর্মীরা।

srimongol taiar agunপুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করে তারা।

রবিবার(৫ নভেম্বর) সকাল ৭ টার দিকে শ্রীমঙ্গলের হবিগঞ্জ রোডস্থ ঢাকা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে মাঝখানে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে দেয় বিএনপি নেতাকর্মীরা। তবে শহরে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘সকালে হবিগঞ্জ রোডস্থ ঢাকা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে বিশৃঙ্খলাকারী টায়ার পুড়িয়ে ফেলে অবরোধ করার চেষ্টা করে।

আরও পড়ুন:

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে কাউকে পাওয়া যায়নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। যানমাল রক্ষার স্বার্থে সকল জায়গায় রয়েছে পুলিশ।

তিনি আরও জানান, শ্রীমঙ্গলের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ২৪ ঘণ্টা একজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।

বিএনপির বিরুদ্ধে মামলা ৮৯টি; আটক ২১৭২ জন

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: গত আটদিনে অর্থাৎ ২৮ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত বিএনপির বিরুদ্ধে ৮৯ টি মামলা করা হয়েছে। সেই সাথে ২১৭২ জনকে আটক করা হয়েছে।

আজ রবিবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, ৮৯টি মামলা হয়েছে শুধুমাত্র আইনশৃঙ্খলার অবনতি ও সহিংসতার ঘটনায়। রাজধানীতেই ৩৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি মামলা হয়েছে পল্টন থানায়। এ থানায় ১৪টি মামলা হয়েছে। এরপর রমনা তানায় মামলা হয়েছে ছয়টি।

shajahan-omor-arrest-newsasia24

আরও পড়ুন:

 

উল্লেখ্য, শনিবার গভীর রাতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর এবং এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরীকে আটক করা হয়।