শিরোনাম

রাজনীতি

বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি করার অনুমোদন দিল হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক: বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি করার অনুমোদন দিয়েছে হাইকোর্ট।

সোমবার (১ এপ্রিল) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার কাজলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে, বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করে জারি করা প্রজ্ঞাপন কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

আদালতে এদিন রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক। তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার হারুনুর রশিদ।

এর আগে আজ সোমবার বুয়েট শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা ইমতিয়াজ রাব্বি ক্যাম্পাসে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন।

আরও পড়ুন:

হালাল উপার্জন করে জীবিকা নির্বাহ করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে : নজরুল ইসলাম খান

মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুর লিঙ্গ প্রকাশ করা যাবে না: হাইকোর্ট

শাশুড়ি-স্ত্রী হত্যার জন্য যুবকের মৃত্যুদণ্ড

বুয়েটে উপাচার্য সত্য প্রসাদ মজুমদার হাইকোর্টের এই নির্দেশনার পর সাংবাদিকদের বলেন, বুয়েটে ছাত্ররাজনীতির বিষয়ে হাইকোর্টের সিদ্ধান্ত মানতে হবে। আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

২০১৯ সালে তৎকালীন উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ ঘোষণা করেন। তখন তিনি জানান, নীতিমালা অনুযায়ী বুয়েটে শিক্ষক রাজনীতিরও সুযোগ নেই।

google-news-channel-newsasia24

হালাল উপার্জন করে জীবিকা নির্বাহ করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে : নজরুল ইসলাম খান

মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, দেশে হালাল উপার্জন করে জীবিকা নির্বাহ করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

আজ ১৬ মার্চ শনিবার রাজধানীর পল্লবীতে এক ইফতার মাহফিলে একথা বলেন তিনি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান দ্রব্যমুল্যের উর্ধগতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, নিত্য প্রয়োজনীয় উপকরণের দাম বাড়ায় রমজানের মাসেও মানুষের দুর্ভোগ কমেনি।খাবার নিয়ে সরকার দলীয় নেতারা

নানা পরামর্শ দিয়ে মানুষের সঙ্গে উপহাস করছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। জনগণের টাকা যারা বিদেশে পাচার করে, এই টাকায় বিলাসী জীবন যাপন করে তাদের শাসন চিরস্থায়ী হবে না বলেও জানান নজরুল ইসলাম খান।

ঢাকা মহানগর উত্তর পল্লবীর ২ ও ৯১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির উদ্যোগে ইফতার মাহফিল পূর্ব আলোচনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক ডাঃ ফরহাদ হালিম ডোনার বলেন, দেশের ২% মানুষ ভোট দিতে কেন্দ্রে যায়নি। জনগন কেন্দ্রে ভোট দিতে না যাওয়ার মানে হলো, নীরব বিপ্লবের মাধ্যমে এ আওয়ামী সরকারকে জনগণ প্রতিহত করেছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক বলেন, ৭ জানুয়ারির নির্বাচন ছিল ডামি নির্বাচন। দেশের মানুষ দেখেছে ২% মানুষও এ নির্বাচনে ভোট দিতে কেন্দ্রে যায়নি। এমনকি আওয়ামী লীগের লোকজনও ভোট দেয়নি। এ নির্বাচন পৃথিবীর কারও কাছেই গ্রহণযোগ্য নয়। এ নির্বাচন দেশে ও সারা বিশ্বের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে।

আরও পড়ুন:

“ভাইস চেয়ারম্যান” পদ প্রার্থী আব্দুর রহিম সরদার গণ সংযোগ করলেন বেনাপোলে

বেনাপোল প্রতিনিধি: আসন্ন ৬ষ্ঠ জাতীয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শার্শা উপজেলায় “ভাইস চেয়ারম্যান” পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন বলিষ্ঠ কন্ঠঃস্বরের অধিকারী,রাজপথের লড়াকু সৈনিক,অত্র উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি-আব্দুর রহিম সরদার।

নির্বাচন উপলক্ষ্যে নিজের শতভাগ জয়লাভের আশা নিয়ে প্রায় প্রতিদিন শার্শা উপজেলার এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত পর্যন্ত ছুটে চলেছেন ভোটারদের দোয়া ও সমর্থণ পাওয়ার আশায়।

শনিবার(২ মার্চ) বিকালে তিনি অত্র উপজেলার বন্দর সংলগ্ন ৪নং বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তার কর্মী সমর্থকদের সাথে নিয়ে নির্বাচনী গণসংযোগ করেন।

আরও পড়ুন>>প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১৬৩ টাকা

সেখানে পৌছলে,সেখানকার ইউপি চেয়ারম্যান-মোঃ বজলুর রহমান সহ ঐ পরিষদের বিভিন্ন ওয়ার্ডের ওয়ার্ড মেম্বর এবং ওয়ার্ড আ.লীগ,যুবলীগ,স্বেচ্ছাসেবকলীগ মহিলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ,শ্রমিকলীগ এবং বেনাপোলের গণ্যমাণ্য ব্যাক্তিবর্গ তাকে স্বাগত জানান।

ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আনঅফিসিয়ালী অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ব্যাক্তিবর্গকে ছালাম জানিয়ে প্রার্থী আব্দুর রহমান সরদার বলেন-“ছাত্র জীবণের অবসান ঘটিয়ে জনসেবায় কাজ করতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে আরও শক্তিশালী করতে ৬ষ্ঠ জাতীয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতায় নেমেছি। আপনাদের দোয়া ও সমর্থন চাই”।

আরও পড়ুন>>মুসলিম নাকি হিন্দু? খোকসার বৃষ্টি খাতুন

“আমাকে এ নির্বাচনে আপনারা ভোট দিয়ে বিজয়ী করলে এ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডকে উন্নয়নের রোল মডেল সহ গরিব-দুঃখী মেহনতি মানুষের কল্যাণে কাজ করার সুযোগ চাই। আমি নির্বাচিত হলে আমার এ উপজেলায় মাদক, সন্ত্রাস, বাল্য বিয়ে ও জুয়া বন্ধে কাজ করে যাব। এ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডকে ডিজিটাল ও আদর্শ গ্রাম হিসেবে গড়ে তুলবো। এ জন্য সকলের দোয়া ও সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করি”।

সভা শেষে তিনি কর্মী সমর্থকদের নিয়ে ঐ ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে যান এবং সাধারণ ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং নির্বাচনে জয়লাভে তাদের দোয়া ও সমর্থণ চান।

google-news-channel-newsasia24

Follow

স্বতন্ত্র এমপিদের আমন্ত্রণ: প্রধানমন্ত্রীর

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সব স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যকে গণভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ (২৪ জানুয়ারি) বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, আগামী রবিবার (২৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় স্বতন্ত্র এমপিদের গণভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে তাদেরকে কী কারণে ডাকা হয়েছে, সেটি বলেননি তিনি।

গত ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৬২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। ১০ জানুয়ারি সকালে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ৬২ স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

আরও পড়ুন:

এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জয় পেয়েছে ২২২টি আসনে। তাদের শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- পেয়েছে একটি করে আসন। আওয়ামী লীগের সমর্থনে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি জিতেছে একটি।

এবার ৪৬টি আসনে নৌকাকে হারতে হয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কাছে। এদের মধ্যে ৪৪ জনই আওয়ামী লীগ নেতা।

google-news-channel-newsasia24

Follow

টানা চতুর্থবারের মতো সংসদ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন শেখ হাসিনা

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা টানা চতুর্থবারের মতো সংসদ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন।

আজ (১০ জানুয়ারি) বুধবার আওয়ামী লীগের এমপিদের শপথ শেষে অনুষ্ঠিত দলের সংসদীয় দলের সভায় শেখ হাসিনাকে সংসদ নেতা নির্বাচিত করা হয়।

shaikh-hasina-nirbacon-shofor-newsasia24

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনার নাম প্রস্তাব করেন। নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন প্রস্তাবে সমর্থন জানান। পরে সর্বসম্মতিক্রমে তা গ্রহণ করা হয়।

সংসদ নেতা নির্বাচনের পাশাপাশি বৈঠকে সংসদ উপনেতাও নির্বাচিত করা হয়। একাদশ জাতীয় সংসদের উপনেতা বেগম মতিয়া চৌধুরীকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের উপনেতা করা হয়েছে।

আরও পড়ুুুুন:

এদিকে সংসদীয় দলের সভায় বর্তমান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীকে আবারও স্পিকার হিসেবে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত হয়। ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকুকেও রাখা হয় বহাল।

চিফ হুইপ নুর-ই-আলম চৌধুরী লিটনকেও বহাল রাখা হয়েছে তার পদে। তিনি আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সেক্রেটারি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করবেন।

google-news-channel-newsasia24

Follow

রাজবাড়ী-২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলার চেষ্টার অভিযোগে নৌকার কর্মী আটক

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: রাজবাড়ী-২ (পাংশা, কালুখালী, বালিয়াকান্দি) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী হকের ওপর হামলার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ অভিযোগে আবুল খায়ের (২৮) নামে নৌকা সমর্থিত এক কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় তাকে আটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন।

আটক আবুল খায়ের কালুখালী উপজেলার পুর্বফুল কান্নাইর পশ্চিম পাড়ার মালু মণ্ডলের ছেলে।

রাতে স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের সোনাপুর বাজারে আমার গাড়ির ওপর হামলার চেষ্টা করে। তারা হলেন, ইউসুফ হোসেনের ছেলে সোহেল ও আবুল খায়ের। এর সাথে নৌকার প্রার্থী মো. জিল্লুল হাকিমের ১০-১২জন কর্মী ছিলেন।

এসময় স্থানীয় জনতা ও পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। বিষয়টি আমি লিখিত ও মৌখিক ভাবে থানায় জানাই। পরে সন্ধ্যায় আবুল খায়েরকে আটক করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: 

বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী হকের ওপর

হামলার চেষ্টার অভিযোগে আবুল খায়ের নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

google-news-channel-newsasia24

নির্ভয়ে ভোট দেওয়ার আহ্বান করলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হক

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে ঈগল প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান করেছেন রাজবাড়ী-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা নুরে আলম সিদ্দিকী হক।

আজ মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে পাংশা, বালিয়াকান্দি ও কালুখালী উপজেলার ভোটারদের উদ্দেশ্যে এ আহ্বান করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা ঈগল প্রতীকের প্রার্থী নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, রাজবাড়ী-২ আসনের নির্যাতিত নিপীড়িত, বঞ্চিত ও শোষিত মানুষের কথা বিবেচনা করে আমি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেছি। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর একটি মহলের ইঙ্গিতে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছিল। পরে নির্বাচন কমিশনে আপীল করে ফেরত পেয়েছিলাম মনোনয়ন।

নুরে আলম সিদ্দিকী হক পাংশা, বালিয়াকান্দি ও কালুখালী উপজেলাবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, এ তিন উপজেলার অবস্থা আপনাদের অজানা নয়। আজ সকলের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। ভিন্নমত প্রকাশ করলেই তার ওপর নেমে আসে অমানুষিক নির্যাতন। একটি দুর্বৃত্ত শ্রেণীর মানুষের কাছে তিন উপজেলার মানুষ জিম্মি হয়ে আছে। এভাবে আর চলতে পারে না। সুতরাং ভয়কে জয় করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

আরও পড়ুন:> আদালতে ক্ষমা চাইলেন নৌকার প্রার্থী বাদশা

তিনি বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকার সকল ধর্ম বর্ণের মানুষ নির্ভয়ে শান্তিতে বসবাস করবে এটাই আমার অঙ্গীকার। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জল দৃষ্টান্ত হবে আমার নির্বাচনী এলাকা রাজবাড়ী-২ আসন। তাই কোন রক্তচক্ষুকে ভয় পাবেন না। নির্বাচনকে সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ করার জন্য নির্বাচন কমিশন, জেলা প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে। সুষ্ঠ নির্বাচন এবং সুন্দর নির্বাচন করার জন্য তারা বদ্ধ পরিকর।

আরও পড়ুন: 

রাজবাড়ী শহরে স্থানীয় প্রেসক্লাব সংলগ্ন দৈনিক জনতার আদালত পত্রিকা অফিসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

google-news-channel-newsasia24

আদালতে ক্ষমা চাইলেন নৌকার প্রার্থী বাদশা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: দোষ স্বীকার করে আদালতে কাছে ক্ষমা চেয়েছেন কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশা এমপি।

শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে প্রতিনিধির মাধ্যমে ওই আসনের অনুসন্ধান কমিটির প্রধান, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আসাফ উদ দৌলার কার্যালয়ে লিখিত জবাব পাঠিয়েছেন। আদালত পুলিশের পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভবিষ্যতে এমন ঘটনা আর ঘটবে না মর্মে শোকজ নোটিশের জবাবে তিনি লিখিতভাবে ক্ষমা চান পাশাপাশি নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন।

এর আগে নির্বাচনী পথসভা চলাকালে তিনি বলেছিলেন, ‘নৌকায় ভোট দিতেই হবে, বাদশাকে ভোট দিতে হবে না হলে সব সোজা করে দেব’। এছাড়াও নানা ভাষায় সাধারণ ভোটারদের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করেন। ফলে, নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে ব্যাহত, আচরণবিধি লঙ্ঘন হওয়ায় নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি তাকে শোকজ নোটিশ দেন।

লিখিত জবাবে তিনি বলেছেন, অজ্ঞাতসারে বা অসাবধানতাবশত অথবা বাক্য উচ্চারণের প্রকাশভঙ্গিতে কোনো ত্রুটি হয়ে থাকতে পারে। তবে আগামীতে এমন ঘটনা আর ঘটবে না মর্মে অঙ্গীকার করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন: 

উল্লেখ্য, গত ২৫ ডিসেম্বর নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশা এমপি তার নির্বাচনী প্রচারনার একটি ভিডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এত শান্তিপূর্ণ নির্বাচনী পরিবেশকে ব্যাহত হয়। পরে ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি এর ব্যাখ্যা চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছিলেন। গত শুক্রবার লিখিত জবার দেওয়ার দিন ধার্য ছিল।

google-news-channel-newsasia24

হিরো আলমের ওপর হামলা

মারুফ সরকার,স্টাফ রিপোর্টার : বগুড়া-৪ আসনে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গিয়ে নৌকার সমর্থকদের হাতে হামলার শিকার হয়েছেন বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম।

আজ শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নন্দীগ্রামের মুরাদপুর বাজার এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা মোবাইল কেড়ে নিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেছেন কংগ্রেসের মনোনীত প্রার্থী হিরো আলম।

hero-alom-attack-newsasia24

হিরো আলম জানান, আজ সন্ধ্যায় কর্মীদের নিয়ে মুরাদপুর বাজারে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে যাই। কিন্তু বাজারে প্রচারণার কাজ শুরু করার আগেই নৌকার সমর্থকরা এসে বাধা দেন। ওরা পাঁচজন এসেছিল। এসেই বলে মাইক বন্ধ করতে হবে। এখানে নৌকা ছাড়া অন্য কারও প্রচারণা চলবে না। তখন আমার ফোন থেকে ভিডিও নেওয়া হচ্ছে দেখে তারা মোবাইল কেড়ে নেয়। আর আমাদের সঙ্গে হাতাহাতি হয়। পরে খবর দিলে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশের ওসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

আরও পড়ুন: 

হিরো আলম আরও বলেন, এ ঘটনায় আমি একটা সংবাদ সম্মেলন করবো। রাত আটটায় আমার বাসা থেকে সংবাদ সম্মেলন হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশের ওসি জানান, খবর পেয়ে আমি পুলিশ নিয়ে সরেজমিনে গিয়েছি। সেখানে একটু ঝামেলা হয়েছে, তবে প্রার্থী হিরো আলম যেভাবে বলছেন তেমন ঘটনা কিছু পাইনি। তার মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করেছেন। এ কথার সত্যতাও পাওয়া যায়নি। তারপরেও আমরা বিষয়টি খুব গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

google-news-channel-newsasia24

Follow

গাজীপুরে অবৈধ টাকা ছিটিয়ে কোন লাভ হবে না

গাজীপুর প্রতিনিধি: কিছু মানুষ সবসময়ই ষড়যন্ত্র করে। নির্বাচনেও এর বাহিরে নয়। তাদের কিছু অবৈধ টাকা আছে, বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকায় ছিটানো হচ্ছে।
মানুষ এত বোকা নয়। মানুষ যাচাই-বাছাই করে নির্বাচনের দিন ভোট দিবে। তবে, গাজীপুরে অবৈধ টাকা ছিটিয়ে কোন লাভ হবে না।
There-will-be-no-profit-in-sprinkling-illegal-money-in-Gazipur3-newsasia24
আজ শনিবার (২৩ ডিসেম্বর ) সকালে টঙ্গীর কলেজ গেইট এলাকায় গণসংযোগে এসব কথা বলেন  গাজীপুর-২ আসনের নৌকার প্রার্থী মো. জাহিদ আহসান রাসেল।
তিনি আরো বলেন, গাজীপুরের মানুষ গত বছরগুলোতে যে উন্নয়ন হয়েছিল তা দেখে অবশ্যই নৌকা মার্কায় ভোট দিবে।
এদিকে, গাজীপুর-২ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও তার কর্মীদের প্রচার প্রচারণায় গোটা নির্বাচনী এলাকা সরগরম হয়ে উঠেছে। নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে এলাকায় মাইকিং, পোষ্টার ঝুলানো, লিফলেট বিতরণ ও পথসভা চলছে জোরেসোরে।
There-will-be-no-profit-in-sprinkling-illegal-money-in-Gazipur2-newsasia24
সকাল থেকে টঙ্গী হোসেন মাকের্টের বিভিন্ন এলাকায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল তার দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা ও কুশল বিনিময় করেন।
আরও পড়ুন: 
এ সময় তিনি ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে গিয়ে উৎসব মুখর পরিবেশে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয় করার আহবান জানান।
এদিকে, দুপুর ২টার দিকে টঙ্গীর পাইলট স্কুলের শিক্ষারর্থীদের মাঝে লিফলেট বিতরণ করেন রাসেল। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর সাথে কর্মীরাও লিফলেট নিয়ে যাচ্ছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। ভোটারদের কাছে প্রতিমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ তুলে ধরছেন নেতাকর্মীর।
google-news-channel-newsasia24