শিরোনাম

শীর্ষ সংবাদ

নোয়াখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ৩ শ্রমিক নিহত

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বহুতল ভবনের মাটি পরীক্ষার (সয়েল টেস্ট) সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৩ নির্মাণশ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন শাকিল (২৫), রিয়াজ (২৬) ও কামরুল (৩০)।

স্থানীয়রা জানান, দুর্গাপুর ইউনিয়নে একটি বহুতল ভবন নির্মাণের জন্য মাটি পরীক্ষার সময় লম্বা লোহার পাইপ পল্লী বিদ্যুতের ৪৪ হাজার ভোল্টে বিদ্যুতায়িত হয়ে তিন শ্রমিক আহত হন। তাদের কে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

আরও পড়ুন:

তিনি বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তিনজনের মরদেহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। অভিযোগ অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

google-news-channel-newsasia24

Follow

মালয়েশিয়ার ‘মিনি ঢাকায়’ অভিযান, আটক ৪৯০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মালয়েশিয়ার ক্লাং শহরে এক অভিযানে ৪৯০ জন বিদেশিকে আটক করেছে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ। শহরের ‘মিনি ঢাকা’খ্যাত জালান আমান পেরদানার একটি অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

আটকদের মধ্যে বাংলাদেশ, নেপাল, আফগানিস্তান ও ইন্দোনেশিয়ার লোকজন রয়েছে। তাদের অপরাধ, মালয়েশিয়ায় অতিরিক্ত অবস্থান ও সঠিক কাগজ না থাকা। বৈধ ভ্রমণ নথির অভাব ও নানা অপরাধের কারণেও বেশ কয়েকজন আটক হয়েছেন।

আটকদের বয়স ২০ থেকে ৫০ এর মধ্যে। প্রয়োজনীয় কার্যক্রম (ডকুমেন্টেশন প্রক্রিয়া) শেষ হওয়ার পর তাদের সেমেনিহ ইমিগ্রেশন ডিপোতে নেওয়া হবে।

দ্যা স্ট্রেইট টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে অবৈধ বিদেশিদের ধরতে এ অভিযান পরিচালনা করে সেলাঙ্গর ইমিগ্রেশন বিভাগ। তাদের সঙ্গে যুক্ত ছিল বুকিত আমান অ্যান্টি-ভাইস, গ্যাম্বলিং ও সিক্রেট সোসাইটিস ডিভিশন (ডি-সেভেন) এবং জেনারেল অপারেশন ফোর্স (পিজিএ)।

আরও পড়ুন>>মিয়ানমারের ছোড়া মর্টার শেল পড়লো বাংলাদেশে

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) মধ্য রাত থেকে জালান আমান পেরদানার মিনি ঢাকায় অভিযানটি শুরু হয়।

খবরে আরও বলা হয়েছে, ওই শিল্প এলাকার একটি পাঁচতলা অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের সম্পূর্ণটি বিদেশি শ্রমিকে পরিপূর্ণ ছিল। তাদের মধ্যে অনেকেই নথিভুক্ত ছিলেন না। কোনো বৈধ কাগজ না থাকলেও তারা শিল্প এলাকার অ্যাপার্টমেন্টগুলোর নিচে নানারকম ব্যবসা করে আসছিলেন।

অবৈধ বিদেশিদের ধরতে যৌথ অভিযানে যোগ দেয় ৩০০ সশস্ত্র পুলিশ কর্মকর্তা। অ্যাপার্টমেন্টের আটটি ব্লকের মধ্যে চারটিতে অভিযান পরিচালনা করেন তারা। এর আগে পুরো এলাকা রেকি করে সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো।

আরও পড়ুন>>পাকিস্তানে পিটিআই মিছিলে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৪

দ্যা স্ট্রেইট টাইমস বলেছে, পুলিশ অনথিভুক্ত বিদেশিদের আগমনের বিষয়ে তথ্য স্থানীয়দের অভিযোগ ও নানা উপাত্তের মাধ্যমে সংগ্রহ করেছিল। এরপর গত একমাস ধরে মিনি ঢাকা এলাকাটিতে তারা নজরদারি ও তদন্ত চালিয়ে আসছিল।

বুধবার রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে অভিযানটি শুরু হয়। এ সময় বিদেশিদের মধ্যে বেশিরভাগ ঘুমিয়ে ছিল। অভিযানের বিষয়টি টের পেতে তাদের সময় লেগে যায়, তাই তারা পালাতে পারেননি। অনেকে অবশ্য চেষ্টাও করে। কিছু লোক ওই অ্যাপার্টমেন্টের ছাড়ে উঠে ঝাঁপ দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু অভিযানকারী বাহিনী আগে থেকেই সব প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিল।

আরও পড়ুন>>রাশিয়ায় ৬৫ বন্দি নিয়ে প্লেন বিধ্বস্ত

আটক অনথিভুক্ত বিদেশিরা আশপাশের কারখানায় কাজ করা ও মিনি ঢাকাখ্যাত জালান আমান পেরদানার আবাসন ভাড়া নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে। এ কাজে তাদের নিয়োগকর্তাদের মধ্যে কয়েকজনও জড়িত।

স্থানীয়রা বলছেন, যারা আটক হয়েছেন তারা সাধারণত আমাদের বিরক্ত করে না। কিন্তু সমস্যা হলো তারা একটু অপরিচ্ছন্ন থাকে। এবং তারা প্রকৃতপক্ষে এখানে অসংখ্য। কখনও কখনও মনে হয় তারা এখানে আমাদের (স্থানীয়) চেয়ে বেশি।

google-news-channel-newsasia24

Follow

কুড়িগ্রামে মুসল্লি সেজে মাদক পাচারের চেষ্টা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামে বিশ্ব ইজতেমার উদ্দেশে মুসুল্লিদের নিয়ে ছেড়ে যাওয়া একটি বাসে মাদক পাচারের সময় গাঁজাসহ আঙুর হোসেন নামের এক মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাগেশ্বরী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুপ কুমার সরকার। এর আগে গতকাল বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার আঙুর গতকাল রাতে নাগেশ্বরী বাসস্ট্যান্ড থেকে বিশ্ব ইজতেমার রিজার্ভ বাসে মুসল্লির ছদ্মবেশে মাদক নিয়ে ঢাকা যাচ্ছিলেন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে নাগেশ্বরী থানা পুলিশের একটি দল ওই বাসের মুসল্লিদের সহায়তায় সাড়ে ১০ কেজি গাঁজাসহ তাকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে।

আরও পড়ুন:

কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো: রুহুল আমীন বলেন, গ্রেপ্তারকৃত মাদক কারবারি ছদ্মবেশে বিশ্ব ইজতেমার বাস ব্যবহার করে মাদক পরিবহনের চেষ্টা করেছিল। কিন্তু মুসল্লিদের সহায়তায় নাগেশ্বরী থানা পুলিশের একটি টিমের অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

google-news-channel-newsasia24

Follow

বিশ্বের ১০০ শহরের তালিকায় বায়ু দূষণে শীর্ষে ঢাকা

ঢাকা প্রতিনিধি: বিশ্বের ১০০ শহরের তালিকার মধ্যে আজ বায়ু দূষণে শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা। এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সে ঢাকার বাতাসের স্কোর ৩৪৬। বাতাসের এই মানকে ‘দুর্যোগপূর্ণ’ বলে বিবেচনা করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের (আইকিউএয়ার) সূচক থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এই সময়ে সবচেয়ে ভালো বাতাস বিরাজ করছে যুক্তরাজ্যের শহর লন্ডনে।

Dhaka-tops-the-list-of-100-cities-in-the-world-for-air-pollution-newsasia24.jpg

সূচকে ১৯২ স্কোর নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ঘানার শহর আক্রা। পাকিস্তানের করাচী, নেপালের কাঠমান্ডু, ভারতের মুম্বাই যথাক্রমে ১৭৯, ১৭২ এবং ১৭১ স্কোর নিয়ে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে।

স্কোর শূন্য থেকে ৫০ এর মধ্যে থাকলে বায়ুর মান ভালো বলে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ হলে মাঝারি বা সহনীয় ধরা হয় বায়ুর মান। সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর।

আরও পড়ুন:

১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়। স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে খুবই অস্বাস্থ্যকর বলে বিবেচনা করা হয়। এছাড়া ৩০১-এর বেশি হলে তা দুর্যোগপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়।

২০১৯ সালের মার্চে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল , ঢাকার বায়ুদূষণের তিনটি প্রধান উৎস হলো—ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।

google-news-channel-newsasia24

Follow

গ্যাসের চুলায় আগুন পোহাতে গিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে গ্যাসের চুলায় আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে মো. জসিম উদ্দিন (৪০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে তিনি ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

জসিম লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ মজুপুর গ্রামের মৃত বাদশা মিয়ার ছেলে। তিনি একসময় আনসার সদস্য ছিলেন।

A-man-died-in-a-gas-stove-fire-newsasia24

পরিবারের লোকজন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানায়, জসিম গত কয়েক মাস ধরে শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সকালে তিনি বাড়ির গ্যাসের চুলার পাশে বসে আগুন পোহাচ্ছিলেন।

এসময় চুলা থেকে তার গায়ের চাদরে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তেই শরীরের বিভিন্ন স্থানে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুন থেকে রক্ষা পেতে তিনি বাড়ির পাশের পুকুরে ঝাঁপ দেন। বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

আরও পড়ুন:

অবস্থা গুরুতর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিটে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ মারা যান তিনি।

google-news-channel-newsasia24

Follow

আজ থেকে শুরু বাঙালির প্রাণের বইমেলা

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আজ (১ ফেব্রুয়ারি) থেকে শুরু হচ্ছে বাঙালির প্রাণের বইমেলা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেলা ৩টায় মাসব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করবেন। এবারের বইমেলায় থাকছে ৬৩৫টি প্রতিষ্ঠানের মোট ৯৩৭টি স্টল।

এবারের মেলার প্রতিপাদ্য ‘পড়ো বই, গড়ো দেশ: বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ।’ কোনো তৃতীয় মাধ্যম ছাড়াই এবারের বইমেলার সার্বিক দায়িত্বে আছে বাংলা একাডেমি।

বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বাংলা একাডেমি প্রকাশিত ‘কালেক্টেড ওয়ার্কস অব শেখ মুজিবুর রহমান: ভলিউম-২’ সহ কয়েকটি গ্রন্থ-উন্মোচন করবেন। সেই সঙ্গে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২৩ বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ করবেন।

Bengali-life-book-fair-starts-from-today-newsasia24

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে প্রায় সাড়ে ১১ লাখ বর্গফুট এলাকাজুড়ে হচ্ছে বইমেলা। বাংলা একাডেমি মাঠে ১২০টি প্রতিষ্ঠানকে ১৭৩টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৫১৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৬৪টি স্টল বরাদ্দ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ বছর প্যাভিলিয়ন থাকছে ৩৭টি। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ১টি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৩৬টি।

মেলায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মাসব্যাপী সেমিনারের পাশাপাশি শিশু-কিশোরদের জন্য ছবি আঁকা, সংগীত ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা থাকবে। প্রতি শুক্র ও শনিবার মেলায় বেলা ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত ‘শিশুপ্রহর’ থাকবে। প্রথমবারের মতো শিক্ষার্থীদের জন্য ৫ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পরিচয়পত্র দেখালেই মিলবে এ সুযোগ।

মেলার মূল মঞ্চ থাকবে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে। বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও ‘লেখক বলছি’ মঞ্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণে স্থাপন করা হয়েছে। গত বছরের মতো রমনা কালী মন্দির গেটে প্রবেশের ঠিক ডান দিকে বড় পরিসরে রাখা হয়েছে শিশুচত্বর। লিটল ম্যাগাজিন চত্বর স্থানান্তরিত হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের উন্মুক্ত মঞ্চের কাছাকাছি গাছতলায়।

সেখানে প্রায় ১৭০টি লিটলম্যাগকে স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অন্যান্যবারের মতো খাবারের স্টলগুলো এলোমেলো না রেখে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন অংশে বিন্যস্ত করা হয়েছে। নামাজের স্থান এবং ওয়াশরুম থাকবে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশনের পাশে।

আরও পড়ুন:

এবারের মেলায় প্রবেশদ্বার মোট চারটি। মেট্রোরেল স্টেশনের অবস্থানগত কারণে গতবারের মূল প্রবেশপথ এবার একটু সরিয়ে বাংলা একাডেমির মূল প্রবেশপথের উলটো দিকে অর্থাৎ মন্দির গেটটি মূল প্রবেশপথ হিসেবে ব্যবহার হবে। এছাড়া ও টিএসসি, দোয়েল চত্বর ও ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের দিকে মোট ৩টি প্রবেশপথ থাকবে।

সমালোচনা এড়াতে এ বছর বাংলা একাডেমি এককভাবে মেলার সব আয়োজন সম্পন্ন করেছে। গ্রন্থমেলা কমিটির সদস্য সচিব ড. কে এম মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, আগের বছরগুলোতে কিছু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি মেলার আয়োজনে জড়িত ছিল। যার ফলে গত বছর কিছুটা সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। এ বছর একাডেমি সব বাস্তবায়ন করছে।

google-news-channel-newsasia24

Follow

মিয়ানমারের ছোড়া মর্টার শেল পড়লো বাংলাদেশে

নিজস্ব প্রতিবেদক: মিয়ানমার থেকে ছোড়া মর্টার শেল বাংলাদেশের নাইক্ষ্যংছড়ি লোকালয়ে পড়ার ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক কাটছে না। যে কোনো মুহূর্তে ফের গোলাগুলির আশঙ্কা করছেন তারা। মঙ্গলবার রাতেও অবিস্ফোরিত মর্টার শেল এসে পড়ে।

এ অবস্থায় আজ বুধবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে নাইক্ষ্যংছড়ি ভাজাবনিয়া সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক শাহ মুজাহিদ উদ্দিন।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সরকারি জান্তা বাহিনী ও বিদ্রোহীদের মধ্যে থেমে থেমে সংঘাত চলমান। এ সংঘাতে বিভিন্ন সময় নিক্ষিপ্ত গোলা তাদের সীমানা পেরিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ির সীমান্তবর্তী লোকালয়ে এসে পড়ছে।

এতে নিত্যদিনের কাজে ও শিক্ষার্থীদের স্কুলে পাঠাতেও ভয় পাচ্ছেন অভিভাবকরা। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কোনার পাড়া এলাকায় বিস্ফোরিত মর্টার শেলের খোসা পাওয়া যায়।

মঙ্গলবারও দিনগত রাতে ঘোনারপাড়া এলাকায় মিয়ানমার থেকে নিক্ষিপ্ত অবিস্ফোরিত মর্টার শেল এসে পড়ে। এসব ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। তবে এ পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

ভাজাবনিয়া সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নূরজাহান বেগম বলেন, সীমান্তের ওপারের গোলাগুলিরও ভারী গোলার শব্দে পুরো এলাকা কেঁপে ওঠে। কোনো সময় আবার গোলাগুলি শুরু হয় তা বলা মুশকিল। এ পরিস্থিতিতে ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠাতে খুবই ভয় লাগে।

তুমব্রু ঘোনারপাড়া এলাকার বাসিন্দা আবু সিদ্দিক বলেন, মধ্যরাতে গোলাগুলি শুরু হলে ভয়ে কাঁচাঘরের বাসিন্দারা পাড়ার বা কাছাকাছি পাকা দালানে গিয়ে আশ্রয় নেন। গতকাল রাতে যখন আবারও গোলাগুলি শুরু হয় তখন সীমান্ত সড়কের ওপারে আশ্রয় নিয়েছিলাম।

আরও পড়ুন:

সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনকালে বান্দরবান জেলা প্রশাসক শাহ মোজাহিদ উদ্দিন বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক রয়েছে। পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে বিপজ্জনক এলাকায় বসবাসকারীদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হবে। এসময় স্থানীয়দের আতঙ্কিত না হয়ে সজাগ থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

google-news-channel-newsasia24

Follow

সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের কারনে হতে পারে বৈবাহিক বিচ্ছেদ

লিমা পারভীন: বর্তমানে সবাই সোশ্যাল মিডিয়ায় আসক্ত। আসলে কর্মব্যস্ত এই জীবনে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেই মানুষ সামাজিক হতে চায়। অনেক পুরোনো স্মৃতিও ফিরিয়ে আনে সোশ্যাল মিডিয়া। তবে এই সোশ্যাল মিডিয়ার কারণে বহু সম্পর্কের মধ্যেই কিন্তু ফাটল দেখা দেয়।

বৈবাহিক সম্পর্ক, পারিবারিক জীবন, লাভ লাইফ, বন্ধু-বান্ধব, সব সম্পর্কেই বাড়ছে দূরত্ব। অনেক ক্ষেত্রে এই সোশ্যাল মিডিয়া থেকেই জন্ম নেয় সন্দেহ। আর সেই সন্দেহ থেকেই শুরু হয় বাদ-বিবাদ। এমনকি সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের জন্য সম্পর্কে বিচ্ছেদও ঘটে।

Divorce-due-to-social-media-use-newsasia24

বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের ক্ষেত্রে কয়েকটি ভুল করলে সম্পর্কের বিচ্ছেদ হতে পারে। জেনে নিন কী কী-

১. সোশ্যাল মিডিয়ার অতিরিক্ত ব্যবহার: অবসর পেলেই সঙ্গীকে ছেড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মনোযোগ দেন অনেকেই। এরপর ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটান সোশ্যাল মিডিয়ায়। আপনার এই অভ্যাস সঙ্গীর ভালো না লাগাই স্বাভাবিক। সঙ্গী পাশে থাকার সময়ও যদি আপনি সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন বা সঙ্গী যদি সব সময় আপনাকে অনলাইনে অ্যাকটিভ দেখেন তাহলে বিবাদ হতেই পারে। এজন্য সঙ্গী পাশে থাকলে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার ত্যাগ করুন।

২. সঙ্গীর পোস্টে লাইক ও কমেন্ট না করা: বন্ধু-বান্ধব থেকে আত্মীয়-স্বজন সবার পোস্টেই হয়তো আপনি লাইক ও কমেন্ট করেন, তবে ভালোবাসার মানুষের কোনো পোস্ট দেখলেই হয়তো তা এড়িয়ে যান। এই ভুল করবেন না আর। সঙ্গী সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো কিছু পোস্ট করলে তাতেও লাইক-কমেন্ট করুন। তবেই আপনাদের মধ্যে বাড়বে ঘনিষ্ঠতা। সম্পর্ক হবে দৃঢ়। আর অন্যান্যরাও আপনাদের বিষয়ে ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করবেন।

আরও পড়ুন>>খালিপেটে দুধ চা খেলে কী কী সমস্যা হতে পারে, জেনে নিন?

৩. সঙ্গীর সঙ্গে ছবি পোস্ট না করা: সোশ্যাল মিডিয়ায় মাঝেমধ্যে আপনার সঙ্গীর সঙ্গে তোলা ছবি শেয়ার করুন। সুন্দর ক্যাপশন দিন। তবেই তো খুশি হবে আপনার ভালোবাসার মানুষ।

৪. সঙ্গীর পোস্ট দেখে হিংসা করা: সোশ্যাল মিডিয়ায় সঙ্গীর করা পোস্টে লাইক বা কোনো কমেন্ট দেখে ঈর্ষান্বিত হয়ে নিজেদের মধ্যে ঝগড়া বা অশান্তি ডেকে আনবেন না। এই বিষয়টিকে খুব সহজভাবে দেখুন।

আরও পড়ুন>>রাতে জ্বর আসার কারন কী ?

৫.মুখোমুখি কথা না বলা: ফোনে কথা বলা বা অনলাইন কমিউনিকেশনে অনেক সময় মনের ভাব ঠিকমতো প্রকাশ করা যায় না, ফলে ভুল বোঝাবুঝি আরও বাড়ে। সেখান থেকেই বিতর্কের জন্ম হয়। তাই সঙ্গীর সঙ্গে সামনাসামনি কথা বলুন। এতে আপনারা একে অপরের আবেগ, অনুভূতি বুঝতে সক্ষম হবেন।

আরও পড়ুন>>শিশুদের দেরীতে কথা বলার কারন কী ?

৬. গোপনীয়তা বজায় না রাখা: সোশ্যাল মিডিয়া মানুষকে ব্যক্তিগত তথ্য ও অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে উৎসাহিত করে। তবে অনেকে না বুঝেই নিজেদের ব্যক্তিগত বিষয় বা অন্তরঙ্গ মুহূর্তগুলো সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে ফেলেন। যা একেবারেই করা উচিত নয়। গোপন বিষয় সব সময় নিজেদের মধ্যে রাখা উচিত। গোপনীয়তার অভাবেই একে অপরের প্রতি বিশ্বাস ভেঙে যেতে পারে।

google-news-channel-newsasia24

Follow

চুয়াডাঙ্গায় আগুন পোহাতে গিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে আয়না খাতুন (৩৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।

আজ বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য মতিয়ার রহমান দোলন।

Housewife-dies-in-fire-in-Chuadanga-newsasia24

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কুমারী ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামের সোহেল রানা ওরফে কালুর স্ত্রী আয়না খাতুন। তিনি মিরপুর থানাধীন কুর্ষা ইউনিয়নের মাজহাদ গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে।

গত ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার বিকেলে বাড়ির উঠানে তিনি একাই বিচালির খড় দিয়ে আগুন পোহাচ্ছিলেন। এক পর্যায়ে তার পরণের কাপড়ে আগুন ধরে যায়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই সারা শরীরে আগুন লেগে যায়।

আরও পড়ুন>>রাজধানীতে এক শিক্ষার্থীকে মা’ ডেকে অটোরিকশায় তুলে যৌন হয়রানি

প্রতিবেশী রহিমা বেগম জানান, সন্তানদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা গিয়ে তাকে মারাত্মক দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করেন। প্রথমে তাকে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন>>রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হলের ছাদ ধসে ৩ জন আহত

পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার রাতেই ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সাজারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানে ১২ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বুধবার সকাল ৭টায় তার মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন>>দুই অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ: নিহত ১, আহত ৯

আলমডাঙ্গা ওসি শেখ গণি মিয়া জানান, ঢাকার শাহবাগ থানা থেকে একটি মেসেজের মাধ্যমে মৃত্যুর ঘটনাটি জানায়। তবে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে জিডি কিংবা থানা পুলিশকে এখনো অবগত করেনি।

google-news-channel-newsasia24

Follow

রাজধানীতে এক শিক্ষার্থীকে মা’ ডেকে অটোরিকশায় তুলে যৌন হয়রানি

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায় এক শিক্ষার্থীকে (২৭) মা ডেকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগে আমীর হোসেন (৭০) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) তেজগাঁও থানার বিজয় সরণি মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেন । ওই তরুণী বেসরকারি একটি ভাষা শিক্ষা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী।

তিনি বলেন, ঘটনার শিকার ওই শিক্ষার্থী এ বিষয়ে অভিযোগ করলে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরও জানান, গতকাল (সোমবার) বিকেলে ওই শিক্ষার্থী বাসায় ফেরার জন্য ফার্মগেটে অপেক্ষা করছিলেন। এসময় আমির হোসেনও ওই স্থানে ছিলেন। তখন আমির হোসেন তাকে প্রস্তাব দেন ভাড়া শেয়ার করে যৌথভাবে অটোরিকশায় যাওয়ার জন্য।

যৌথভাবে গেলে ভাড়া কম লাগবে তাই রাজি হন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী। এছাড়া ৭০ বছর বয়সী আমির হোসেন তাকে ‘মা’ ডাকায় তিনিও আশ্বস্ত হয়েছিলেন। কিন্তু গাড়িতে উঠেই আমির শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানি করেন। যৌথভাবে ভাড়া দেওয়ার কথা থাকলেও আমির নিজেই পুরো ভাড়া দিয়ে দেন এবং তার নাম্বার দিয়ে দেন। ভুক্তভোগী লোকলজ্জায় কাউকেই কিছু বলেননি।

আরও পড়ুন: 

আজ বিকেলে আমির হোসেন আবারও তাকে ফোন দেন এবং একসঙ্গে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। এই সুযোগে ওই শিক্ষার্থী পুলিশে অভিযোগ করলে তেজগাঁও থানার ফার্মগেট মোড় ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে থেকে আমির হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

google-news-channel-newsasia24ফলো করুন