Deprecated: Function Automattic\Jetpack\Assets::add_async_script is deprecated since version 2.1.0 with no alternative available. in /home/newsasia24/public_html/wp-includes/functions.php on line 6031
শীর্ষ সংবাদ Archives - Page 30 of 47 - newsasia24.com
শিরোনাম

শীর্ষ সংবাদ

মুঠোফোনে শেখ হাসিনার সাফল্য বার্তা

ফাহিম শাওন: ক্রমেই এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব। সেই সাথে উন্নতির পথে বাংলাদেশ। ক্রমবর্ধমান উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অগ্রগামী বাংলাদেশ। যা বিশ্বে অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশের সাথে প্রতিযোগীতামূলক।

দেশের মানুষের মৌলিক চাহিদাগুলোর ঘটেছে আমুল্য পরিবর্তন। দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার ঘটেছে অকল্পনীয় উন্নয়ন। বিশেষ করে মেট্রোরেল এর যাত্রা, যা অনেক উন্নত বিশ্বের চোঁখে আঙ্গুল দিয়ে দেখানোর মত।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সেইসব সাফল্য বার্তা মানুষের কাছে পৌছে দেয়া হয়েছে মুঠোফোনের মাধ্যমে।

সেই সাফল্য বার্তাগুলো হলো:

  • যুব ও ক্রীয়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক ২০০৯-২০২৩ সাল পর্যন্ত সারা দেশে ৭৭৩২ টি প্রতিষ্ঠানে ৯২ কোটি ৮৫ লক্ষ টাকার ক্রীয়া সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে।
  • যুব ও ক্রীয়া মন্ত্রণালয়ের আওতায় বর্তমান সরকারের সময়ে ৪০ হাজার কর্মপ্রত্যাশী যুবক ও যুব নারীকে গাড়ী চালনোর  প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।
  • যুব ও ক্রীয়া মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিকেএসপিতে-তে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক মানের জিমনেশিয়াম ছিল না । বর্তমান এ সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৮ টি।

seikh-hasina-sucess-newsasia24

  • ২০০৯-২০২৩ সময়কালে ৪৫ টি জেলায় নতুন গ্রন্থাগার ভবন নির্মিত করা হয়েছে।
  • যুব ও ক্রীয়া মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ২০০৯-২৩ সাল পর্যন্ত সারা দেশের ১০ লক্ষ ৭৫ হাজার ২০০ জন শিশুকে ক্রীড়ার বিভিন্ন ইভেন্টে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।
  • ২০০৬ সালে বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা ছিল ৩৭৮২ মেগাওয়াট। বর্তমান সরকারের সময়ে তা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২৫২২৭ মেগাওয়াট।
  • ২০০৬ সালে মোবাইল ফোনের সিম ছিল ১৯ মিলিয়ন। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮৩.৫৩ মিলিয়ন।
  • ২০০৬ সালে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ছিল ৬ কোটি ৭৮ লক্ষ জন। বর্তমান সরকারের সময়ে এসে দাঁড়িয়েছে ১২ কোটি ৩৩ লক্ষ জন।
  • ২০০৬ সালে ওয়ার্কিং ফোর্সে মহিলাদের অংশগ্রহণ ছিল মাত্র ২১.২%। বর্তমান সরকারের সময়ে বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৪৩.৪৪%।
  • সার্বজনীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের লক্ষ্যে ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করেছে সরকার। নারী, শিশু ও সেবাপ্রার্থীদের জন্য দেওয়া হচ্ছে ২৭ রকম ওষুধ ও সেবা।

আরও পড়ুন>> কুড়ি বছরে পা রাখল দুদক

  • নদী ভাঙ্গন ও নবসৃষ্ট এলাকাসহ মোট ৩৬৯টি উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, ২৭৭৬টি হাট-বাজার উন্নয়ন, ১২৪৬টি সামাজিক প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করা হয়েছে।
  • ২০০৬ সালে মাতৃমৃত্যুর হার ছিল (লাখে) ৩৭০ জন। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে কমে মাতৃমৃত্যুর হার ১৬১ জন।
  • ২০০৬ সালে মেয়েদের প্রাথমিক শিক্ষার হার ছিল ৫৪%। বর্তমান সরকারের সময়ে বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৯৮.২৫ %।
  • ২০০৬ সালে বেকারত্বের হার ছিল ৬.৭৭%। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে বেকারত্ব কমে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩.৬%।
  • ২০০৬ সালে শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ছিল মাসিক ১৪৬২ টাকা। বর্তমান সরকারের সময়ে তা দাঁড়িয়েছে ৮৩০০ টাকা।
  • মুক্তিযোদ্ধার সন্মানী ভাতা ৯০০ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ২০ হাজার টাকায় উন্নীত করেছে সরকার। উপকৃত হচ্ছে প্রায় ২ লাখ বীর মুক্তিযোদ্ধার পরিবার।
  • ভবিষ্যতের স্মার্ট প্রজন্ম গড়ার লক্ষ্যে শতভাগ শিশুকে উপবৃত্তির আওতায় এনেছে সরকার। ফলে বিনামূল্যে শিক্ষাসুবিধা পাচ্ছে ১ কোটি ৩০ লাখের বেশি শিশু।

আরও পড়ুন>> নির্বাচনে যাওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিল জাতীয় পার্টি

  • ২০০৬ সালে সেচের আওতাভুক্ত কৃষি জমি ছিল ২৮ লক্ষ হেক্টর। বর্তমান সরকারের সময়ে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৯ লক্ষ হেক্টর।
  • ২০০৬ সালে কৃষি উৎপাদন ছিল ২ কোটি ৬১ লক্ষ টন। বর্তমান সরকারের সময়ে বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৯ কোটি ৮০ লক্ষ মেট্রিক টন।
  • ২০০৬ সালে স্বাক্ষরতার হার ছিল মাত্র ৪৫%। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে ৩০.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৭৫.৬%।
  • ২০০৬ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ছিল মাত্র ৬৫,৬৭২টি। বর্তমান সরকারের সময়ে বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ১,১৮,৮৯১ টি।
  • ২০০৬ সালে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক সংখ্যা ছিল ৩,৪৪,৭৮৯ জন। বর্তমান সরকারের সময়ে তা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৬,৫৭,২০৩ জন।
  • ২০০৬ সালে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ছিল মাত্র ৯টি। বর্তমান সরকারের সময়ে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সংখ্যা ৯৬টি।
  • ২০০৬ সালে মোট মৎস্য উৎপাদন ছিল ২১.৩০ লক্ষ মেট্রিক টন। বর্তমান সরকারের সময়ে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৩.১৪ লক্ষ মেট্রিক টন।
  • ২০০৬ সালে চা উৎপাদন ছিল ৩৯ মিলিয়ন কেজি। বর্তমান সরকারের সময়ে চা উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৮১ মিলিয়ন কেজি।
  • ২০০৬ সালে লবণ উৎপাদন ছিল ৮.৫৪ লক্ষ মে. টন। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে লবণ উৎপাদন দাঁড়িয়েছে ২৩.৪৮ লক্ষ মে. টন।
আরও পড়ুন:
বিআরটিসি যাত্রীদের জন্য টোল ফ্রি
দ্বিতীয়বারের মতো পেছানো হলো প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা
নেদারল্যান্ডে রাজনৈতিক সুনামি
ডিপিডিসির এশিয়ান পাওয়ার এ্যাওয়ার্ড -২০২৩ অর্জন

 

  • ২০০৬ সালে পোল্ট্রির সংখ্যা ছিল ১৮ কোটি ৬ লক্ষ ২২ হাজার। বর্তমান সরকারের সময়ে তা দাঁড়িয়েছে ৫২ কোটি ৭৯ লক্ষ।
  • ২০০৬ সালে নিরাপদ পানির প্রাপ্যতা ছিল মাত্র ৫৫%। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে ৪৩.৭% বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ৯৮.৮%।
  • ২০০৬ সালে শিশু মৃত্যুর হার ছিল (প্রতি হাজারে) ৮৪ জন। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে ৪ গুণ কমে দাঁড়িয়েছে ২১ জন।
  • ২০০৬ সালে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল ০.২৩%। বর্তমান সরকারের সময়ে মোট জনগোষ্ঠীর ৭৩.৫৫% ইন্টারনেট ব্যবহার করছে।
  • ২০০৬ সালে আইসিটি খাতে রপ্তানি ছিল ২১ মিলিয়ন ডলার। বর্তমান সরকারের সময়ে ২০২৩ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১.৯ বিলিয়ন ডলার।

google news newsasia24

নেদারল্যান্ডে রাজনৈতিক সুনামি

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: নেদারল্যান্ডে চলছে রাজনৈতিক সুনামি। নেদারল্যান্ডে গির্ট ওয়াইল্ডার্স ও তার অঙ্গসংগঠন দলগুলো সবচেয়ে শক্তিশালী দল হিসেবে বিবেচিত হয়েছে।

বুধবার (২২ নভেম্বর) সংসদ নির্বাচনে জয়ী হন গির্ট ওয়াইল্ডার্স। যিনি ইউরোপের সবচেয়ে বিখ্যাত ডানপন্থী জনতাবাদী এবং ইসলামের বিরোধীদের একজন।

গির্ট ওয়াইল্ডার্স এর ১৫০টি আসনের মধ্যে ৩৫ টি আসন আশা করাটা ইইরোপরে সংবাদ মাধ্যম “এনজেডজেড” রাজনৈতিক সুনামি বলে মনে করেন।

গতকাল বুধবার উইল্ডার্স তার সমর্থকদের উদ্দেশে খুশিতে চিৎকার করে বলেন, “আমরা বিজয় লাভ করেছি”, ডাচম্যান আবার প্রথম আসবে।

অনান্য প্রার্থীরাও তালিকায় ছিলেন

কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা এই নির্বাচনে অন্য তিন শীর্ষ প্রার্থীদের জনপ্রিয়দের তালিকায় রাখা হয়েছিল। এরা হলেন উদারপন্থী-রক্ষণশীল পিপলস পার্টি ফর ফ্রিডম অ্যান্ড ডেমোক্রেসি (ভিভিডি) থেকে দিলান ইয়েসিলগোজ, সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট এবং গ্রিনসের যৌথ তালিকা সহ ফ্রান্স টিমারম্যানস এবং মধ্যপন্থী পিটার ওমজিট।

europ-politics-tsubami-Wilders-Netherlands-newsasia24
গির্ট ওয়াইল্ডার্স নেদারল্যান্ডসে নির্বাচনের ফলাফলের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন

আরও পড়ুন: 

নির্বাচনে, বামপন্থী টিমারম্যানের জোটের রয়েছে ২৬ টি আসন, ইয়েসিলগোজের ভিভিডির রয়েছে ২৩ টি আসন, এবং ওমটিজিটের দলের রয়েছে ২০ টি আসন।

নির্বাচনে জয়ী হওয়া গির্ট ওয়াইল্ডার্স তার প্রতিপক্ষ দলকে একসাথে কাজ করার আহ্বান করেন।

এছাড়াও ওয়াইল্ডার্সের মতে, ইসলামের বিরুদ্ধে লড়াই এবং মসজিদ বা মাদ্রাসা বন্ধ করা অগ্রাধিকার নয়। দেশে আশ্রয়প্রার্থীদের প্রবেশ বন্ধ করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

google news newsasia24

কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার: কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

আজ বুধবার (২২ নভেম্বর) এ স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ একটি স্বনামধন্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশের উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে এ বিশ্ববিদ্যালয়।

এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর জন্য একটি উল্লেখযোগ্য মাইল ফলক।

ফলে দুটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সহযোগিতার দ্বার উন্মোচিত হলো। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের মাধ্যমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যগণ কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এ উচ্চশিক্ষা এবং গবেষণার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা লাভ করবে ।

আরও পড়ুন:

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শিক্ষা পরিদপ্তর এবং সামরিক প্রশিক্ষণ পরিদপ্তর এর যৌথ উদ্যোগে।

সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষে পরিচালক, শিক্ষা পরিদপ্তর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ রেজাউল ইসলাম,

পিএসসি, পিএইচডি।

kanadian-university-of-bangladesh-bangladesh-army-signature-newsasia24

অপরদিকে কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর পক্ষে স্বাক্ষর করেন উপ-উপচার্য্য অধ্যাপক ড. মোঃ গিয়াস উদ্দিন আহসান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, এসবিপি (বার), ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি ড. চৌধুরী নাফিস সারাফাত।

google news newsasia24

আজ কুড়ি বছরে পা রাখল দুদক

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আজ (২২নভেম্বর) দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কুড়ি বছরে পা রেখেছে।

দেশ ও জনগণের আস্থার প্রতীক, দুর্নীতি দমন ও প্রতিরোধের একমাত্র রাষ্ট্রীয় স্বাধীন প্রতিষ্ঠান হল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ।

dodok,

দুদক সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন (ডুসা) কমিশনের অংশীদার হিসেবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের দিনে দুর্নীতির বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করছে।

ডুসার সদস্যরা দেশ ও জনগণের সেবক হিসেবে সামনের দিনগুলোতে কাজ করবে বলে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ রয়েছে।

অনুষ্ঠানে ডুসার সভাপতি মো. মশিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ সব কর্মকর্তা-কর্মচারী অংশ নেন।

আরও পড়ুন:

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়েছে। ডুসা নেতারা দুর্নীতি দমন ও প্রতিরোধে দুদকের পাশে সবার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ কামনা করে।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

নির্বাচনে যাওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিল জাতীয় পার্টি

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় পার্টি।

আজ বুধবার (২২ নভেম্বর) বিকেলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এর বনানী কার্যালয়ে নির্বাচনে যাওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

jatio party logo

নির্বাচনে যাওয়ার বিষয়ে জাপা মহাসচিব বলেন, নির্বাচন কমিশন, সরকার এবং বিভিন্ন পক্ষের আশ্বাস পেয়েছি নির্বাচন সুষ্ঠু হবে।

এ জন্য জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্বাচনে যাওয়ার।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় পার্টি কোনো জোটে যাবে না, তিনশ আসনেই নির্বাচন করবে জাতীয় পার্টি।

দুপুর পর্যন্ত আমাদের প্রায় ১৪০০ মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে। প্রায় প্রত্যেক আসনেই একাধিক আগ্রহী প্রার্থী মনোনয়ন ফরম গ্রহণ করেছেন।

আমরা আমাদের ঘোষণা অনুযায়ী এককভাবেই নির্বাচন করব। আমরা কারও সঙ্গে আসন সমঝোতায় যাব না।

আরও পড়ুন:

জাতীয় পার্টি স্বচ্ছ রাজনীতি করে, জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধে কোন দুর্নীতির অপবাদ নেই।

গত ৩৩ বছর দেশের মানুষ আমাদের শান্তিপ্রিয় রাজনীতি পছন্দ করেছে। আমরা আশা করছি, তিনশ আসনেই আমরা শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারব।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

ডিএনসিসিতে ঘুষ ছাড়া ট্রেড লাইসেন্স হয় না; দুদকের অভিযান

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: ডিএনসিসিতে (ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন) ঘুষ ছাড়া হয় না ট্রেড লাইসেন্স ইস্যু, নবায়ন কিংবা বাতিল। দুদকের অভিযানে এসব ঘুষ লেনদেনের প্রমান পাওয় গেছে।

দুদকের অভিযানে অফিস সহকারী জসিম উদ্দিন হাওলাদারের বিরুদ্ধে ট্রেড লাইসেন্স করতে ঘুষ দাবির প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এছাড়াও জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে ঢাকার মিরপুরে দুটি ফ্ল্যাটসহ অবৈধ সম্পদের অভিযোগ রয়েছে।

গতকাল দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. তাজুল ইসলাম ভূঁইয়ার নেতৃত্বে ঔই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

বুধবার (২২ নভেম্বর) দুদকের ঊর্ধ্বতন একটি সূত্র থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

অভিযানে লাইসেন্স করতে আসা গ্রাহকদের হয়রানি এবং লাইসেন্স দেওয়ার নামে ঘুষ গ্রহণের সত্যতা পাওয়া যায়।

dncc-newsasia24

আরও পড়ুন: 

এছাড়াও ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে লাইসেন্স করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে ঘুষ হিসাবে ৩ হাজার টাকা নেয়ার কথা স্বীকার করেছেন জসিম। সূত্র: ঢাকা পোস্ট

google news newsasia24

দ্বিতীয়বারের মতো পেছানো হলো প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: দ্বিতীয়বারের মতো পেছানো হলো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা।

আজ মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় এক সভায় এ সিদ্ধান্ত চূরান্ত করা হয়। এ সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন।

সভায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা পিছিয়ে এ বছর ডিসেম্বরের ৮ তারিখে নেয়া হবে বলে জানানো হয়।

এসময় প্রথম পর্বে (রংপুর, বরিশাল ও সিলেট বিভাগ) নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব ফরিদ আহাম্মদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াতসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

primary

আরও পড়ুন:

উল্লেখ্য, প্রথমে ২৪ নভেম্বর এবং পরে ১ ডিসেম্বর নেওয়ার কথা ছিল এ নিয়োগ পরীক্ষা। পরে পিছিয়ে ৮ ডিসেম্বর করা হলো।

প্রথম পর্বে ১৮টি জেলার ৫৩৫টি কেন্দ্রে সকাল ১০ থেকে ১ ঘণ্টার এ লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ পর্বের পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ লাখ ৬০ হাজার ৬৯৭ জন।

google news newsasia24

অবারো লাইনচ্যুত ট্রেন, ঢাকা-উত্তরবঙ্গ ট্রেন চলাচল বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারো যাত্রীবাহী একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে। ফলে ঢাকা সঙ্গে উত্তরবঙ্গের রোল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

আজ মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) ভোর ৪টা ৪০ মিনিটে টাঙ্গাইলের ঘারিন্দা রেলস্টেশনে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা রংপুর এক্সপ্রেস এ দুর্ঘটনায় পতিত হয়।

rangpur-express-train-accident-newsasia24 2

বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব রেলস্টেশনের ইনচার্জ রেজাউল করিম জানিয়েছেন, রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি ভোরের দিকে বঙ্গবন্ধু পূর্ব রেলস্টেশনে বিরতি নেয়। কিছুক্ষন পরে ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে যায়। টাঙ্গাইল রেলস্টেশনে পৌঁছালে ট্রেনটির ইঞ্জিনের পাশের বগিটি হঠাৎ লাইনচ্যুত হয়ে যায়।

আরও পড়ুন:

টাঙ্গাইল রেলওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আকবর জানান, বিষয়টি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। ট্রেনটিকে দ্রুত উদ্ধারকরে চলাচল স্বাভাবিক করা হবে।

brammonbaria-train-accident-newsasia24

এর আগে, গত ১৯ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঢাকাগামী একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়। ফলে চট্টগ্রামসিলেট রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

বিএনপি নির্বাচনে এলে পুনঃতফসিলের বিবেচনা করবে ইসি

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা সুলতানা বলেছেন, বিএনপিসহ নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেওয়া অন্যান্য দল যদি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসে তাহলে পুনঃতফসিল দেওয়ার বিবেচনা করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

এক্ষেত্রে বিএনপিকে ফরমালি ভোটে আসার কথা জানাতে হবে।

আজ সোমবার (২০ নভেম্বর) নির্বাচন ভবনের নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন ইসি বেগম রাশেদা সুলতানা।

বিএনপি এবং আরো অনেক দল যদি ভোটে ফিরতে চায় তবে কি এইতফসিলে ফেরা সম্ভব বা নাকি বিএনপির জন্য কোনো বিবেচনা থাকবে-এমন প্রশ্নের জবাবে রাশেদা সুলতানা বলেন, তারা যদি ফিরতে চান, কীভাবে কী করা যায়, এ নিয়ে আমরা নিশ্চয় আলোচনা করব। সিদ্ধান্ত নেব।

ওনারা (নির্বাচনে) আসতে চাইলে অবশ্যই আমরা ওয়েলকাম করব। কখনোই ওনাদের আমরা ফিরিয়ে দেব না।

তিনি বলেন, বিস্তারিত এখন কিছুই বলব না। বিএনপিসহ তফসিল প্রত্যাখ্যানকারী অন্যান্য দল যদি আসে, আমরা কমিশনাররা বসব। আইনকানুন দেখব। তারপর যেটা সিদ্ধান্ত হয়। আমরা নেব।

তার মানে আপনারা বিবেচনা করবেন- এই প্রশ্নের জবাবে ইসি রাশেদা আরও বলেন, (বিএনপি) এলে তো বিবেচনা করবই, অবশ্যই করব।

এই বিবেচনার মধ্যে কী পন্থা আছে- জানতে চাইলে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, এই মুহূর্তে আমি বিস্তারিত বলতে পারব না। ২০১৮ সালের নির্বাচনে ওনারা এসেছিলেন।

ওই নির্বাচনে কিন্তু তাদের জন্য একটু স্পেস তৈরি করা হয়েছিল।

যেভাবে আইনে আছে আমরা সেভাবেই করব। আমি বিস্তারিত আর কিছু বলব না।

তফসিল পেছানোর জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন জানিয়েছে জাতীয় পার্টি, তফসিল একটু পেছানো যায় কি না- প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই বিষয়টায় আমরা কিছুই বলব না।

অগ্রিম বলার সময় এখনও আসেনি। যখন আসবে, যেটা হবে সেটাই বলব। পরিস্থিতি দেখে আমরা সিদ্ধান্ত নেব।

অগ্রিম এ বিষয়ে কোনো কথাই বলব না। বলা উচিত না। তারা এলে আমরা ওয়েলকাম করব। তাদের জন্য আইন অনুযায়ী যেভাবে পথ সৃষ্টি করতে হবে সেভাবে করব। কিন্তু আগেই বলব না।

রাশেদা সুলাতানা আরও বলেন, অতীতে যেভাবে হয়েছে আমরা দেখব।

যদি বাড়ানো প্রয়োজন হয়, আমরা বাড়াব। যদি এই তফিসলের মধ্যেই আসেন, তাহলে তো তফসিলে হাত দেওয়ার দরকার নাই।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, নিশ্চয়ই অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের এখনো সুযোগ আছে।

মাঠের রাজনীতি অশান্ত আছে, তাই বলে শান্ত হবে না এমন কোনো কথা নেই। যেকোনো মুহূর্তে শান্ত হতে পারে।

তিনি দলগুলোর উদ্দেশে বলেন, আমাদের প্রতি আস্থা রাখেন। আসেন, নির্বাচন করেন।

নিঃসন্দেহে আপনারা একটা ভালো সুষ্ঠু, সুন্দর, নির্বাচন করার সুযোগ পাবেন।

আরও পড়ুন:

ভোটাররা এসে স্বাধীনভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। যাকে ইচ্ছা তাকে মনোনয়ন করবেন। নিশ্চয় আমরা লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করব।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন

৩ মাসের শিশুকে চুরি করলো এক বোরকা পরা নারী

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: এক বোরকা পরা নারী কোলে নেওয়ার কথা বলে ৩ মাসের শিশুকে চুরি করলো।

স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালের জরুরি বিভাগে শিশু জোবাইদা আক্তারের রক্ত পরীক্ষা করাতে লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তার মা ও নানি।

তখন শিশুটির মা টিকিট কাউন্টারে ব্যস্ত। নানির কোলে ছিল শিশুটি।

midford hashpatal shishu

ওই লাইনের পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা বোরকা পরা এক নারী শিশুটির নানিকে বলেন আপনি মুরুব্বি মানুষ, বাচ্চা কোলে রাখতে সমস্যা হলে আমাকে দেন ।

ঠিক ওই সময় শিশুটির নানির মোবাইল ফোন বেজে ওঠে। ওই সময় ফোনে কথা বলছিলেন তিনি।

এই সুযোগে বোরকা পরা ওই নারীও শিশুটিকে কোলে নিয়ে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে থেকে রবিবার (১৯ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শিশু চুরির এই ঘটনা ঘটে।

পরে ভুক্তভোগীর মা বিভিন্নস্থানে খোঁজা-খুঁজির পর দিশেহারা হয়ে নিজের সন্তানকে ফিরে পেতে কোতয়ালী থানা পুলিশের দারস্ত হন।

কোতয়ালী থানার পুলিশ জানায়, নিখোঁজ ৩ মাস বয়সী শিশু জোবাইদা আক্তারকে উদ্ধার ও অজ্ঞাত ওই চোরকে ধরতে হাসপাতালের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বার বার দেখা হচ্ছে।

শিশুটির মা জানান, রাজধানীর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের পারগেন্ডারিয়া এলাকায় তাদের বাসা।

সকালে তিনমাস বয়সী শিশু জোবাইদার রক্ত পরীক্ষা করাতে এবং নিজের আল্ট্রাসনোগ্রাম করাতে মিটফোর্ড হাসপাতালে এসেছিলেন।

সঙ্গে শিশুটির নানিও এসেছিলেন। তিনি যখন টিকিট কাউন্টারে যান তখন শিশুটি তার নানির কোলে ছিল।

কিন্তু রোবকা পরিহিত এক নারী তার সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যায়।

তদন্তে শিশু চুরির ঘটনার সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, মিটফোর্ড হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে একটি রিকশা দাঁড়িয়ে ছিল।

জরুরি বিভাগের গেটে একপাশে বয়স্ক নারী এবং অন্যপাশে বৃদ্ধ এক লোক বসে ছিলেন।

আর গেট থেকে একটু দূরে কালো বোরকা পরা এক নারী একটি শিশুকে কোলে নিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে।

ওই নারীর মুখ ও নাক ঢাকা, তার ডান কাঁধে শিশুটি এবং বাম হাতে একটি সাদা শপিং ব্যাগ। সাদা রঙের জুতো পায়ে।

আর শিশুটি পরনে ছিল হালকা গোলাপি রঙের একটি পোশাক।

ফুটেজে আরও দেখা যায়, কিছুক্ষণ ওই নারী শিশুটিকে কোলে নিয়েই ধীরে ধীরে হাঁটাচলা করছিলেন।

তখন একটি কালো প্রাইভেটকার জরুরি বিভাগের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ওই রিকশাটি চলে যায়।

এতে বোরকা পরা ওই নারী বারবার তার স্থান পরিবর্তন করেন।

কিছুক্ষণ পর তার ব্যাগ থেকে মোবাইল ফোন বের করে কথা বলার ভান করে ধীরে ধীরে হেঁটে গেটের দিকে যেতে থাকে ওই নারী।

ঠিক রবিবার সকাল ৮টা ৫৬ মিনিটে হাসপাতাল থেকে অন্য এক নারী এক শিশুকে কোলে নিয়ে বের হয়ে যাওয়ার সময় তার পিছু পিছু বোরকা পরা অজ্ঞাত নারীও হেঁটে হেঁটে বের হয়ে যায়।

কোতয়ালী থানা থেকে বলা হয়, নিখোঁজ শিশুটির বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া গেলে, দ্রুত কোতয়ালী থানা পুলিশকে জানাতে বলা হয়।

আরও পড়ুন:

আজ সোমবার (২০ নভেম্বর) এ বিষয়ে কোতয়ালী থানার (এএসআই) রাশিদুল হাসান বলেন, তিনমাস বয়সী শিশু জোবাইদা চুরির ঘটনায় আমরা তদন্ত করছি।

ঘটনাস্থল ও আশপাশের বিভিন্ন সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে।

google-news-follow-us-newsasia24
গুগোল নিউজ ফলো করতে ক্লিক করুন