শিরোনাম

শিরোনাম

কম বয়সে পাকা চুল থেকে মুক্তির ১৫ টি ঘরোয়া টিপস

লিমা পারভীন: একটা সময় ছিল যখন মানুষের ৫০ বছর পেরোলে চুলে পাক ধরত। কিন্তু এখন পরিবেশ দূষণ এবং আধুনিক জীবনযাত্রার স্ট্রেসের কারণে ২৫ না পেরোতেই সাদা চুল দেখা যায়।

আসুন জেনে নেই কম বয়সে পাকা চুল থেকে মুক্তির ঘরোয়া টিপস,

karri-patta-newsasia24১. কারি পাতা:
কম বয়সে চুল পাকা রুখতে দারুণ কাজ করে কারি পাতা। নারকেল তেলে কারি পাতা ফুটিয়ে নিন। এই তেল ছেঁকে নিয়ে মাথায় মাসাজ করুন। জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২. ঝিঙে:
চুল কালো করতে ঝিঙে তিন দিন নারকেল তেলে ভিজিয়ে রাখুন। এই তেল ফোটাতে থাকুন যতক্ষণ না কালো হয়ে যায়। এই কালো তেল চুলে মাসাজ করুন। এক ঘণ্টা পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আরও পড়ুন>>৮টি উপায়ে চিন্তা মুক্ত থাকুন

৩. আমলকি:
একটা বাটিতে অল্প করে নারকেল তেল এবং কয়েক টুকরো আমলকি নিয়ে গরম করুন। তারপর সেই তেলটা ধীরে ধীরে সারা চুলে লাগিয়ে কয়েক মিনিট ভালো করে মাসাজ করুন। এমনটা ১৫ দিন করলেই দেখবেন সুফল পেতে শুরু করেছেন।

৪. আদা:
১ চামচ মধুর সঙ্গে পরিমাণমতো আদা মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। তারপর সেটি প্রতিদিন চুলে লাগান। চুলকে দীর্ঘসময় কালো রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

আরও পড়ুন>>শীতে খুশকি থেকে মুক্তির ৭ টি ঘরোয়া টিপস

৫. নারকেল তেল ও লেবুর রস:
একটা বাটিতে সমপরিমাণে নারকেল তেল এবং লেবুর রস নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মিশ্রণটা মথার খুলির ত্বকে লাগিয়ে ভালো করে কয়েক মিনিট মাসাজ করুন। এই পদ্ধতিতে চুলের যত্ন নিলে চুল তো পাকেই না।

৬. ঘি:
সাদা চুলের সমস্যা দূর করতে সপ্তাহে দুইবার পরিমাণমতো ঘি চুলে লাগিয়ে মাসাজ করুন। এমনটা কয়েক দিন করলেই চুলে পরিবর্তন আসতে শুরু করবে।

আরও পড়ুন>>শীতে হাতের চামড়া উঠে যাচ্ছে ? জেনে নিন ৫ টি ঘরোয়া উপায় !

৭.মেথি:
চুল পাকা রোদে মেথির গুরুত্ব অপরিসীম। রাতে মেথি ভিজিয়ে রেখে সকালে পেয়াঁজ এর সাথে মিশে পেষ্ট করতে হবে।প্রতিদিন গোসলের ২ ঘন্টা আগে চুলে মাখতে হবে।

৮. লিকার চা:
কড়া করে বানানো এক কাপ লিকার চায়ে ১ চামচ লবণ মিশিয়ে নিন। পরে সেই চা চুলে এবং মাথার ত্বকে লাগিয়ে নিন। এক ঘণ্টা পর ভালো করে চুলটা ধুয়ে ফেলুন।
এই ঘরোয়া চিকিৎসাটি কিন্তু প্রতিদিন করতে হবে। তবেই দ্রুত ফল মিলবে।

৯. পেঁয়াজ বাটা:
এতে উপস্থিত বিশেষ কিছু এনজাইম সাদা চুলের সমস্যা দূর করার পাশাপাশি চুল পড়া কমাতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। এক্ষেত্রে পরিমাণমতো পেঁয়াজ থেকে রস সংগ্রহ করে সেটা চুলে লাগাতে হবে।

আরও পড়ুন>>শিশুদের অমনোযোগিতা একটি মানসিক রোগ

১০. গোলমরিচ:
১ গ্রাম গোলমরিচের সঙ্গে হাফ কাপ দই এবং কয়েক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। তারপর সেই পেস্টটা স্কাল্পে এবং চুলে লাগায়ে ভালো করে কয়েক মিনিট মাসাজ করুন। এইভাবে যদি সপ্তাহে ২-৩ দিন চুলের যত্ন নিতে পারেন তাহলেই চুল পাকবে না।

alllovera.newsasia24

১১. বাদাম তেল:
বাদাম তেল, লেবুর রস এবং আমলকির রস মিশিয়ে সেই মিশ্রণটি চুলে লাগালে এই ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১২. অ্যালোভেরা জেল:
অসময়ে পেকে যাওয়া চুলের যত্ন নিতে এই প্রাকৃতিক উপদানটি দারুণ কাজে আসে। এ ক্ষেত্রে পরিমাণ মতো অ্যালোভেরা জেল নিয়ে প্রতিদিন চুলে লাগাতে হবে। তবেই উপকার মিলবে।

আরও পড়ুন>.বউ-শাশুড়ির সম্পর্ক মধুর করার ৭ টি উপায়

১৩. সরিষার তেল:
সাদা চুলকে পুরনো অবস্থায় ফিরয়ে আনতে সরিষার তেল দারুণ কাজে আসে। এক্ষেত্রে ২৫০ গ্রাম সরিষার তেলের সঙ্গে ৬০ গ্রাম হেনা পাতা মিশিয়ে ভালো করে গরম করুন। যখন দেখবেন হেনা পাতাটা একেবারে পুরে গেছে তখন আঁচটা বন্ধ করে তেলটা স্কাল্পে এবং চুলে লাগান। এইভাবে প্রতিদিন চুলের যত্ন নিলে অল্প দিনেই একটাও সাদা চুল খুঁজে পাবেন না।

১৪. অশ্বগন্ধা:
চুলের অন্দরে মেলানিনের মাত্রা বাড়ানোর মধ্যে দিয়ে পাকা চুলের সংখ্যা কমাতে এই ঘরোয়া পদ্ধতিটি দারুণ কাজে আসে। তবে এর সুফল পেতে প্রতিদিন মাথার ত্বকে অশ্বগন্ধা লাগাতে হবে।

আরও পড়ুন>>শীতে ত্বকের যত্নে বানিয়ে নিন অ্যালোভেরা ক্রিম

১৫.নিম তেল:
নিম তেল ব্যবহার করলে চুল পাকা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। নিম তেলের অনেক গুনাগুন রয়েছে নিম তেল ব্যবহারের ফলে চুল পাকা এবং চুল ঝরা রোধ করে। চুল যথেষ্ট পুষ্টি পেয়ে থাকে এই নিম তেল থেকে। এতে মাথা ঠান্ডা থাকে।

google news newsasia24

Follow

কুয়েত আমির শেখ নাওয়াফের মৃত্যুতে বাংলাদেশে আজ রাষ্ট্রীয় শোক

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আজ সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয়ভাবে একদিনের শোক পালন করা হচ্ছে কুয়েতের আমির শেখ নাওয়াফ আল-আহমদ আল-জাবের আল-সাবাহার মৃত্যুতে।

এর আগে রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করে শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

quet-amir-died-bangladesh-newsasia24

এ উপলক্ষে সোমবার বাংলাদেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সব সরকারি-বেসরকারি ভবন এবং বিদেশে বাংলাদেশ মিশনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

কুয়েতের আমিরের রুহের মাগফিরাতের জন্য সোমবার বাংলাদেশের সব মসজিদে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে তার আত্মার শান্তির জন্য বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হবে।

আরও পড়ুন:

এর আগে শনিবার কুয়েতের আমির শেখ নাওয়াফ আল-আহমদ আল-জাবের আল-সাবাহ মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। গত মাসে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

google news newsasia24

Follow

থানায় আটক ১২টি ছাগল

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: এবার থানায় আটক করা হলো ১২ টি ছাগল। ঘটনাটি ঘটেছে সান্তাহারে রেলওয়ে থানায়।

বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে রেলওয়ে থানা চত্বরের বাগানের ফুলগাছ খাওয়ায় ১২টি ছাগল আটক করে পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কয়েকদিন আগে সান্তাহারে রেলওয়ে থানার ফুলের বাগান তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়। সেখানে নানা ধরনের ফুলগাছ লাগানো হয়।

শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে সেই বাগানে বেশকিছু ছাগল প্রবেশ করে ফুলগাছগুলো খেয়ে ফেলে। এসময় থানার সামনে ডিউটিরত পুলিশ সদস্য সেখান থেকে কয়েকটি ছাগল আটক করেন।

পরে ওসির নির্দেশে স্টেশনের প্ল্যাটফরম এলাকা থেকে আরও কয়েকটি ছাগল আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। ওইদিন সন্ধ্যার পর ছাগল মালিকরা থানায় এলে ছাগলগুলো ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

got-thana-arrest-newsasia24

আব্দুর রহিম নামের একজন বলেন, ‘আমার চারটি ছাগল আটকে রেখেছিল। আমার প্রতিবেশী ভাগিনাকে ছাগল নিতে পাঠিয়েছিলাম। তবে পুলিশ ছাগল ছাড়াতে প্রথমে ৪০০ টাকা চায়। পরে ৩০০ টাকা দিয়ে ছাগলগুলো নিয়ে আসি। আমাদের ছাগলগুলো যখন থানা থেকে ছাড়িয়ে আনা হয় তখন সেখানে আরও আটটি ছাগল ছিল।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরে থানার বাগানে গিয়ে দেখি ৩-৪টি ফুলগাছ খেয়েছে ছাগল। অথচ ছাগল প্রতি ১০০ টাকা করে নিয়েছে পুলিশ। কী হিসেবে নিলেন তা আমাদের জানানো হয়নি।’

আরও পড়ুন: 

জানতে চাইলে সান্তাহার রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তার হোসেন বলেন, ছাগলগুলো প্ল্যাটফর্মে মূত্রত্যাগ করার কারণে নানা সমস্যা হয়। এছাড়া রেলওয়ে আইন অনুযায়ী রেলওয়ে সীমানায় গরু-ছাগলের প্রবেশ নিষেধ। অথচ সেখানে ছাগলগুলো ঢুকে ফুলগাছ খেয়ে ফেলে।

জরিমানা বা ক্ষতিপূরণের বিষয়ে তিনি বলেন, ছাগল ফিরিয়ে দিতে তিনি এবং তার কোনো পুলিশ সদস্য টাকা নেননি। ছাগলগুলো ফিরিয়ে দেওয়ার সময় তাদের বেঁধে পালন করার জন্য বলা হয়।

google-news-channel-newsasia24

ফলো করতে ক্লিক করুন

দাম বেড়েছে ডিম ও মুরগির

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: বিভিন্ন কাঁচাবাজারে প্রতিটি দোকানেই সাজানো রয়েছে নানান রকমের শীতের সবজি। সরবরাহ বাড়ায় দামও নাগালের মধ্যে রয়েছে। বেশিরভাগ সবজি ৫০ টাকা বা তার কাছাকাছি দরে বিক্রি হচ্ছে।

তবে আবারও আলুর দাম নিয়ে অস্বস্তি। বিশেষ করে নতুন আলুর দাম বাড়তি। দুদিন আগেও যে আলু ৫০ থেকে ৬০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছিল তা এখন বেড়ে (আকারভেদে) ৬০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

তবে স্থিতিশীল রয়েছে পেঁয়াজ ও মাছের বাজার। কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা বেড়েছে মুরগির দাম। বাড়তি রয়েছে ডিমের বাজারও।

আরও পড়ুন>>পেঁয়াজের বাজারে আগুন!

বিক্রেতারা বলছেন, বাজার সরবরাহের ওপরে নির্ভর করে দরদাম। আর ক্রেতার অভিযোগ, ভরা মৌসুমেও ৫০ টাকায় শীতের সবজি কেনা মানে সাধারণকে জিম্মি করে বিক্রি করা।

আজ রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) রাজধানীর মগবাজার বনলতা মার্কেট, মালিবাগ বাজার, মালিবাগ রেলগেট, শান্তিনগর ও সেগুনবাগিচা বাজার ঘুরে এসব চিত্র উঠে এসেছে।

আরও পড়ুন>>আবার বাড়ল এলপিজির দাম

বাজারগুলোতে শালগম, মুলা, ফুলকপি, বাঁধাকপি, পেঁপে ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। গ্রীষ্মের সবজি ঝিঙা, চিচিঙা, পটল বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা।

বাজারে পুরোনো আলু ৫০ টাকায় পাওয়া গেলেও নতুন আলুর দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ টাকা। এখন এসব বাজারে আকারভেদে নতুন আলু বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকার মধ্যে।

poteto-pp-high-newsasia24এখনো চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে আদা-রসুন। দেশি রসুন প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৭০ থেকে ২৮০ টাকা, যা সপ্তাহ খানেক আগে ছিল ২০০ থেকে ২২০ টাকা।

আরও পড়ুন>>সোনার নতুন দাম!

চায়না রসুনের কেজি পাওয়া যাচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকায়। এ মানের রসুনের কেজিতে সপ্তাহের ব্যবধানে ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেড়েছে।

বনলতা বাজারের সবজি বিক্রেতা আলী বলেন, এখন শীতের সবজির দাম তুলনামূলক কম রয়েছে। কিন্তু গ্রীষ্মের অনেক সবজি পাওয়া যাচ্ছে যেগুলোর দাম বেশি। পেঁয়াজ-রসুনের দামও গত দুই-তিন দিন একই ধরনের রয়েছে।

আরও পড়ুন>>কিছু সুবিধাভোগী লোকের জন্য বাজারে অস্থিরতা: ডিএমপি কমিশনার

শান্তিনগর বাজারে আসা একজন ক্রেতা বলেন, শীতের সবজি বাজারে আসা মানেই ৩০ টাকার মধ্যেই সবকিছু বেচা-বিক্রি হওয়া। এর ওপর দর নেওয়া মানেই কোনো এক সিন্ডিকেটের কবলে পড়েছে এটাই ধরতে হবে।

google news newsasia24

Follow

বুবলীকে ‘মহিলা’ ও ‘পচা আলু’ বললেন : অপু বিশ্বাস

বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই সিনেমার দুই নায়িকা অপু বিশ্বাস ও শবনম বুবলীর সম্পর্ক যেন আদায় কাঁচকলায়। চিত্রনায়ক শাকিব খানকে ঘিরে এই দুই নায়িকার ঝামেলা লম্বা সময় ধরে চলছে।বিভিন্ন সময় একে অন্যকে তিরস্কার করেছেন। তবে দিন দিন তাদের তিরস্কারের ভাষা সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

আজ রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) ভোরে নিজের ফেসবুক পেজে ২৮ মিনিট ৫৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করেন এই নায়িকা। যেখানে বুবলী সম্পর্কে একাধিক মন্তব্য করেন অপু বিশ্বাস। কখনো সরাসরি নাম নিয়ে, কখনো আবার নায়িকার সঙ্গে কোনো কিছুর তুলনা টেনে আক্রমণ করেন তিনি।

munni-taposh-bubli-newsasia24

ওই ভিডিওবার্তার একটি অংশে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘এই যে তার (ফারজানা মুন্নী) সংসারে টানাপোড়েন, সেই একই তৃতীয় পক্ষ। যে তৃতীয় পক্ষ আমার সংসারটাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। সরি টু সে ভাবি, আপনি যেমন একটি ইনফরমেশন দিয়েছেন যে, একটি ফোন এসেছে রাত ৩টায়। সেখানে অপু বিশ্বাস লেখা। ফর ইওর কাইন্ড ইনফরমেশন, ট্রু-কলারে যে নামটা দিয়ে রেজিস্ট্রার করা হয়, সে নামটা ভেসে আসে। আমার নম্বরটি থেকে যদি আপনার নম্বরে কল যায়, তাহলে ওখানে নাম উঠবে আব্রাহাম খান।

আরও পড়ুন>>দুই স্বামী নিয়ে হাজির হচ্ছেন অভিনেত্রী পারিশা জান্নাত

কারণ, আমার ওইভাবে রেজিস্ট্রি করা। মুন্নী ভাবি আমাকে প্রথমে ফোন করেছিল মোবাইল ফোনে। তখন তাকে হোয়াটসঅ্যাপে ফোন করতে বলি। কারণ, বিষয়টি সেনসিটিভ। আমার সঙ্গে কিন্তু ওনার হোয়াটসঅ্যাপে কথা হয়েছে।’

কী কথা হয়েছিল তাদের মাঝে সেটা উল্লেখ করে এই নায়িকা বলেন, উনি (ফারজানা মুন্নী) এতটা ডিস্টার্ব ছিল যে, আমার কোনো কথাই বলতে হয়নি। নিজেই বলছিল। তিনি আমাকে বলেছেন ‘আমি আর এই সংসারে থাকব না’। আমি তখন তাকে বলেছি, ভাবি আপনি আমাকে অপু ডেকেছেন না! আমাকে আদর করেছেন না! ওই ‘মহিলা’র (বুবলী) ইনটেনশন হচ্ছে, প্রতিটা সংসার ভাঙা। শাকিব অত্যন্ত সরল-সোজা একজন মানুষ। সেই সরল-সোজা মানুষকে যা-তা করে ইউজ করতে পেরেছে সাইনবোর্ডের মতো।

আরও পড়ুন>>শুধু কণ্ঠ দিয়ে আয় ৩ কোটি

আমি আপনার ক্ষেত্রে এমনটা হতে দেব না। দরকার হলে বলেন, আমি ভাইয়ার সঙ্গে কথা বলব। আপনি ভাইয়াকে ছেড়ে যাবেন, এটা স্বপ্নেও চিন্তা করবেন না। আপনি যদি এই কাজ করেন, তাহলে এখনই ফোনটা কেটে দেব। আমি যখন তাকে বললাম, আমি ভাইয়ার সঙ্গে কথা বলি। তখন ভাবি বলল, অপু তোমাকে সে তার কাছে এতটা খারাপ বানিয়েছে যে, তুমি কীভাবে কথা বলবা। সেই স্পেসটাই তো রাখেনি। আমার বাচ্চাকে নিয়ে সে (বুবলী) বাজে মন্তব্য করেছে।

এরপর বুবলীকে ‘পচা আলু’ নাম দিয়ে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘একটা ভালো রুমের মধ্য পচা আলু থাকলে সেটা গন্ধ ছড়াবেই। যেই গন্ধটা আমার পরিবারকে উই পোকার মতো খেয়ে অন্য একটা পরিবারে ঢুকেছে। আজকে আপনারা (ফারজানা মুন্নী-তাপস) বা আমি-সাকিব অপরপ্রান্ত হয়ে কথা বলছি, সেটা তো ওই পচা আলুর জন্যই। যেহেতু ওই পচা আলু হাতে ধরে ফেলেছেন, গন্ধ তো ছড়াবেই।’

আরও পড়ুন>>প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে দুঃখ প্রকাশ করলেন তানজিন তিশা

সবশেষ অপু বলেন, ‘আলুর গন্ধের জন্য আমার পরিবারটা নষ্ট হয়েছে। মন থেকে দোয়া করি আপনি ও ভাইয়া ভালো থাকেন। আপনারা ভালোভাবে চলেন। আপনারা ভালো-মন্দ যেটাই বলেন, পরিবার সবার আগে তারপর সবকিছু। আমার কাছেও আমার পরিবার আগে। তারপর সবকিছু।

উপস্থাপকও হয়ত একটু বোকার মতো কাজ করেছেন। সে হয়ত চেয়েছেন আমাকে আপনাদের কাছে বাজেভাবে উপস্থাপন করতে। তাতে আমার সমস্যা নেই। আমার পরিবারের লোকজন জানেন আমি কেমন। সবশেষে বলব, হ্যাপি থাকুন। আর এই পচা আলুর গন্ধ যেন আর কোনো পরিবারকে নষ্ট করতে না পারে সেটা মাথায় রাখুন।’

google news newsasia24

Follow

শিশু ভ্যান চালককে হত্যা

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: কুষ্টিয়ায় শিশু চালককে হত্যা করে ভ্যান ছিনতাই করেছিল দুর্বৃত্তরা।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় আদাবাড়িয়া এলাকার নিখোঁজের ৬ দিন পর শাহিন আলী (১১) নামের এক শিশু ভ্যানচালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

koustia-child-murder-newsasia24

আজ রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) সকালের দিকে দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া এলাকার একটি মেহগনি বাগান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। দুর্বৃত্তরা ভ্যানটি ছিনতাইয়ের জন্য শিশুটিকে হত্যা করেছে বলে ধারণা করছে তার পরিবার ও পুলিশ।

নিহত শাহিন আলী প্রাগপুর ইউনিয়নের তেকালা গ্রামের প্রবাসী সাবের আলীর ছেলে। সে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। পড়াশোনার পাশাপাশি মাঝেমধ্যেই ভাড়ায় ভ্যান চালাত।

আরও পড়ুন>>গ্যাস বিস্ফোরণ, একই পরিবারের ৪ জন দগ্ধ

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ১১ ডিসেম্বর বিকেলের দিকে প্রতিদিনের মতো ব্যাটারিচালিত ভ্যান (পাখি ভ্যান) নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় শাহিন। তারপর থেকে তিনি আর বাড়ি ফিরেননি।

নিখোঁজের পরে তার পরিবার দৌলতপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। নিখোঁজের ৬ দিন পর রবিবার সকালে আদাবাড়িয়া এলাকার মাঠের মধ্যে একটি মেহগনি বাগান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ। নিহত শিশুর মাথায় ও শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

আরও পড়ুন>>যশোরে এক দড়িতে স্বামী-স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

মৃত শাহিনের মা কমলি খাতুন ও নানা নূর ইসলাম বলেন, শাহিন প্রায় বিকেলে তার দাদার পাখি ভ্যান গাড়ি নিয়ে ভাড়া মারতে তেকলা বাজারে যেত।

গত ১১ ডিসেম্বর বিকেলে সে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরেনি। আমাদের ধারণা কেউ পাখি ভ্যানটি ছিনতাইয়ের জন্য তাকে হত্যা করেছে। আমরা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তারা।

দৌলতপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) দীপংকর বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ভ্যান ছিনতাই করতে তাকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

google news newsasia24

Follow

৮টি উপায়ে চিন্তা মুক্ত থাকুন

লিমা পারভীন: দুশ্চিন্তা ও মানসিক অস্থিরতা মানুষকে অসুস্থ করে তোলে। স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বাহ্যত করে। টেনশন ছাড়া মানুষের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া আজকাল কঠিন ব্যাপার!তাই দুশ্চিন্তা ও মানসিক যন্ত্রণা থেকে দূরে থাকা চাই।

নিউ ইয়র্কের রচেস্টার মেডিকল সেন্টারের ‘সেন্টার ফর মাইন্ড-বিডি রিসার্চ’ এর মনোরোগবিদ্যার সহকারী অধ্যাপক ড. ক্যাথি হেফনার বলেন, “বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে জানা গেছে যে, দুশ্চিন্তা, স্বল্পপুষ্টির খাবার খাওয়া বা ব্যায়াম করার অনীহার ফলে যেসব শারীরিক সমস্যা দেখা যায়, মানসিক চাপের ফলেও সৃষ্ট সমস্যাগুলো সাধারণত আরও ভয়াবহ হয়ে থাকে।”

tention-remove-8-option-newsasia24

দুশ্চিন্তা থেকে মুক্ত থাকার কিছু উপায় নিম্নে দেওয়া হল:

১. নিজেকে ব্যস্ত রাখুন:
দুশ্চিন্তাকে মাথা থেকে দূরে রাখতে হলে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন। আপনার মস্তিষ্ক এবং হাত ব্যস্ত থাকে এমন কোন কাজ করুন যেমন গেম খেলুন বা কোন হস্তশিল্প তৈরি করুন। বলা হয়ে থাকে, “অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা।” এটি কিন্তু বাস্তবিকই সত্য।

২. ক্ষোভ ঝেড়ে ফেলুন:
মনের মধ্যে ক্ষোভ জমা করে রাখার অভ্যাস কখনোই হৃদযন্ত্রের জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে না। নিউরোসায়েন্স এর এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ক্ষমা করার পরিবর্তে ক্ষোভ জমা করে রাখলে মানসিক চাপ বেড়ে যায় ।

আরও পড়ুন>>শীতে খুশকি থেকে মুক্তির ৭ টি ঘরোয়া টিপস

৩.বাস্তববাদী হওয়া:
যে কোনো ঘটনা বা ভবিষ্যতে কী ঘটতে পারে এ আশঙ্কায় অনেকে অযথা উৎকণ্ঠিত ও চিন্তিত হয়ে পড়েন। এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, জীবন মানেই কিছু সমস্যা থাকবে এবং এমন কিছু ঘটনা ঘটতে পারে যা জীবনে কাম্য নয়। তবে এও ঠিক, সবকিছুর সমাধান রয়েছে ও সময়ের সাথে সব ঠিক হয়ে যায়। কাজেই বাস্তব পরিস্থিতি মেনে নিয়ে তার সঙ্গে খাপ খাইয়ে চলার মানসিকতা গ্রহণ করতে হবে।

৪. তালিকা তৈরি করুন:
আপনার মনে হতে পারে আপনি শত শত সমস্যায় ভুগছেন। তাই আপনার দুশ্চিন্তার কারণগুলোর একটা তালিকা তৈরি করুন। দেখবেন, অল্প কয়েকটির পর আর কোন কারণ খুঁজে পাচ্ছেন না। এর মধ্যে কিছু সমস্যা থাকবে যেগুলো কমবেশি সবারই থাকে। আপনি উপলব্ধি করবেন যে আপনার আসলে দুশ্চিন্তা করার খুব বেশি কারণ নেই। এটা আপনার দুশ্চিন্তা কমাতে এবং আপনাকে মানসিকভাবে শান্তি দিবে।

আরও পড়ুন>>স্বাস্থ্যকর কমলালেবুর ৫ টি উপকারিতা

৫.বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটান:
সবসময় একাকী থাকা মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতি হতে পারে। এমনকি কখনও কখনও হৃদরোগ হতে পারে।তাই একাকী ঘরে না বসে বন্ধুদের সঙ্গে বের হন। মনের কথা বলুন, কষ্ট ভাগ করে নিন।এতে মন হালকা হবে।

৬. প্রাণ খুলে হাসুন:
২০০৫ সালে পরিচালিত গবেষণায় জানা যায়, সবসময় গম্ভীর থাকার বদলে প্রাণ খুলে হাসলে শতকরা বিশভাগ বেশি ক্যালরি পোড়ানো যায়। প্রাপ্তবয়স্ক কিছু মানুষকে নিয়মিত হাস্যকর এবং তুলনামূলক গম্ভীর চলচ্চিত্র দেখানোর পর গবেষকরা এই সিদ্ধান্তে আসেন। নিয়মিত আমোদ-প্রমোদ হৃদস্পন্দনের হার বাড়িয়ে দেয়।

আরও পড়ুন>>শীতে হাতের চামড়া উঠে যাচ্ছে ? জেনে নিন ৫ টি ঘরোয়া উপায় !

৭. ডায়েরি লিখুন:
আপনি হয়তো কখনোই ডায়েরি লেখেননি। যে বিষয়টি আপনাকে কষ্ট দিচ্ছে, মানসিক চাপের কারণ হচ্ছে সেটি একটি ডায়রিতে লিখুন। পাশাপাশি আপনি কী চান বা কী করলে আপনার ভালো লাগত সেই বিষয়টিও লিখুন। ডায়েরি লেখার এই অভ্যাসটি মানসিক চাপ কমাতে অনেকটা সাহায্য করবে আপনাকে।

৮. পর্যাপ্ত ঘুম:
বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষের মধ্যে না ঘুমিয়ে থাকার প্রবণতা লক্ষ করা যায়। সুস্থ থাকতে হলে ছয় থেকে আট ঘণ্টা ঘুম আবশ্যক। এক্ষেত্রে সময়ের চেয়ে কতটা নিশ্চিন্তে (sound sleep) ঘুমানো গেলো তা বেশি গুরুত্বপূর্ণ।‘ঘুম’ থেকে ভালো Stress Looser আর কিছু হতে পারে না। তাই যখন কোনোও কিছুই আর ভালো লাগবে না বা মনে হবে কোনো কিছুতেই মন দিতে পারছেন না, তখন একটু নিরিবিলি জায়গা দেখে পাওয়ার ন্যাপ নিয়ে নিন। দুশ্চিন্তা কেটে যাবে!

google news newsasia24

Follow

জাতীয় পার্টি নির্বাচনে যাচ্ছে

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে জাতীয় পার্টি।

আজ (১৭ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ৩টার সময় জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান জাতীয় পার্টির মহাসচিব মজুবুল হক।

bangladesh-national-party-newsasia24

জাতীয় পার্টি নির্বাচনে থাকবে কি থাকবে না তা আজ রবিবার বিকেলে জানাবে বলে সাংবাদিকদের বলেছিলেন দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক। আজ বেলা ১টার পর দলের চেয়ারম্যানের বনানীর কার্যালয়ে সংক্ষিপ্ত ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।

আরও পড়ুন>>জামায়াতে ইসলামীর মানববন্ধনে পুলিশের আতর্কিত হামলা

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করছেন। এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তিনি বলেন, নির্বাচনে থাকা না থাকা সরকারের সঙ্গে সমঝোতার বিষয় নয়, দলীয় সিদ্ধান্তের বিষয়। আরও কয়েক ঘণ্টা সময় নেওয়া হচ্ছে নিজেদের প্রয়োজনে।

আরও পড়ুুুুন>>গ্যাস বিস্ফোরণ, একই পরিবারের ৪ জন দগ্ধ

আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি (জাপা) সূত্র বলছে, জাপা আওয়ামী লীগের কাছে বেশ কিছু আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার চায়। পাশাপাশি জাপা চায় আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও প্রার্থিতা থেকে সরে দাঁড়াক।

বিষয়টি নিয়ে কয়েক দিন ধরে দুই দলের নেতাদের মধ্যে বৈঠক হচ্ছে। তবে বৈঠকের স্থান ও আলোচনার বিষয় গোপন থাকছে।

google news newsasia24

Follow

গ্যাস বিস্ফোরণ, একই পরিবারের ৪ জন দগ্ধ

নিউজ এশিয়া২৪ ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় চারতলা ভবনের তৃতীয় তলায় একটি ফ্ল্যাট বাসায় গ্যাস বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

বিস্ফোরণ থেকে আগুন লেগে একই পরিবারের চারজন দগ্ধ হয়েছেন ।

শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) রাতে ১টার দিকে কাশিপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

naraingonj-fire-newsasia24

দগ্ধ চারজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- সুলতান মিয়া, সাহিদা আক্তার, নবী হোসেন ও আলী মিয়া।

স্থানীয়রা জানান, কয়েকদিন আগে ওই ওই ফ্ল্যাট বাসায় বসবাস করা পরিবারের সবাই গ্রামের বাড়িতে যান। গ্রাম থেকে শনিবার রাতে বাসায় ফিরে রান্না ঘরে চুলা জ্বালাতে লাইটার জ্বালাতেই আগুনের বিস্ফোরণ হয়।

ঘরের ভেতর থাকা ওই চারজন দগ্ধ হন। তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। এ সময় তাদের উদ্ধার করে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় প্লাস্টিক বার্ন অ্যান্ড সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়।

‘গ্যাসলাইনের লিকেজ’ থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়দের ধারণা।

google news newsasia24

Follow

ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার রাকিবুল হাসান বিস্ফোরণ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গেছে। সেখানে পৌঁছে আহত দগ্ধ কাউকে পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

আরও পড়ুন: 

নীল তিমির জিহ্বার ওজন কত? জেনে নিন, ১৮টি মজার তথ্য!

নিউজ এশিয়া ২৪ ডেস্ক: বিশ্বে অনেক কিছু মজার এবং বিস্ময়কর তথ্য রয়েছে যা অনেকেরই অজানা। তাই নিউজ এশিয়া ২৪ এর পাঠকদের জন্য সেই অজানা মজার বিষয়গুলো তুলে ধরা হলো :

*পৃথিবীর সবচেয়ে বড় প্রাণী নীল তিমির জিহ্বার ওজন মাঝে মাঝে একটা প্রাপ্তবয়স্ক হাতির সমান হয়।

*প্যারিসে অবস্থিত বিখ্যাত আইফেল টাওয়ারের নাম সবাই নিশ্চয়ই শুনেছ। মজার ব্যাপার হলো, টাওয়ারটি প্রথমে স্থাপন করার কথা ছিল স্পেনের বার্সেলোনায়। কিন্তু বার্সেলোনার নগর কর্তৃপক্ষ টাওয়ারটি একদমই পছন্দ না করায় এর ডিজাইনার গুস্তাভো আইফেল নকশাটি নিয়ে যান প্যারিসে। পরে সেখানেই স্থাপিত হয় আইফেল টাওয়ার।

*অবিশ্বাস্য মনে হতে পারে, তবে ভ্যাটিকান সিটি, সান ম্যারিনো, মোনাকো, লিচেনস্টাইন আর এন্ডোরা—এই পাঁচটি দেশে কোনো এয়ারপোর্ট নেই।

*ইংরেজি বর্ণমালার শেষ অক্ষর Z হলেও, সবার শেষে বর্ণমালায় যুক্ত হওয়া অক্ষরটি হলো J।

*হাঁচি দেওয়ার সময় কখনোই চোখ খোলা রাখা যায় না।

*যুক্তরাষ্ট্রের ঔপন্যাসিক আর্নেস্ট ভিনসেন্ট রাইটের লেখা উপন্যাস গ্যাডসবিতে রয়েছে প্রায় ৫০ হাজার শব্দ। কিন্তু উপন্যাসটির মধ্যে একবারও ইংরেজি E অক্ষরটি নেই।

*কানটুপি পরলে শুধু মাথাই গরম হয় না, পায়ের পাতাও গরম হয়।

*একজন মানুষের শরীরের চামড়ার ওজন তার ওজনের প্রায় ১৫%।

*পৃথিবীর অধিকাংশ মানুষের কম্পিউটার পাসওয়ার্ড হলো ১২৩৪৫৬।

*এক মাইল যেতে একটি শামুকের লেগে যায় প্রায় ২২০ ঘণ্টা।

*মানুষের দাঁত হাঙরের দাঁতের মতো শক্ত হয়।

*মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সিতে যত নক্ষত্র আছে, পৃথিবীতে তার থেকে গাছের পরিমাণ বেশি।

google-news-channel-newsasia24

* চুল গ্রীষ্মকালে দ্রুত বড় হয়।

*বয়স এক মাস না হওয়া পর্যন্ত কান্নার সময় বাচ্চাদের চোখের পানি বের হয় না।

*বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রান্তীয় বন হলো আমাজন।

*ডিপ ফ্রিজে ঠান্ডা পানির তুলনায় গরম পানি দ্রুত বরফ হয়ে যায়।

*হিমালয় পর্বতের উচ্চতা প্রতিবছর প্রায় আধা ইঞ্চি করে বাড়ে।

*সবচেয়ে বেশিসংখ্যক পিরামিড রয়েছে সুদানে।

আরও পড়ুন: