শিরোনাম
islamic-question-answer-newsasia24-3

ইসলামের কিছু প্রশ্ন ও উত্তর… ( পর্ব-৩ )

ইসলামের অনেক খুটিনাটি সাধারন বিষয় আছে যেগুলো আমরা অবগত নই। তাই  ইসলামের কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর আকারে “নিউজ এশিয়া২৪” এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলোঃ 

প্রশ্ন: নবী করিম সা. কে দুধ প্রদানকারী উঠনি কতগুলো ছিল?

উত্তর: নবী করিম সা. কে দুধ প্রদানকারী ৪৫ টি উঠনি ছিল।

প্রশ্ন: রাসুল সা. এর কতগুলো বকরি ছিল?

উত্তর: রাসুল সা. এর নিকট একশত বকরি ছিল। এর চেয়ে পরিমানে বেশী বৃদ্ধি হতে তিনি দিতেন না।

প্রশ্ন: কে হুজ্জাতুল বিদা বা বিদায়ী হজ্ব এবং উমরাতুল ক্বাজার মধ্যে হুজুর সা. এর চুল মোবারক কেটে দেওয়ার সোভাগ্য অর্জন করেছিলেন?

উত্তর: এই সোভাগ্য অর্জন করেছিলেন- হযরত মু’মার ইবনে আব্দুল্লাহ এবং উমরাতুল কাজার মধ্যে খিরাস ইবনে উম্মাইয়ারার হয়েছিল।

প্রশ্ন: রাসুল সা. এর কোলের মধ্যে পাঁচজন বাচ্চা প্রস্রাব করেছে। যথক্রমে- ১. সুলাইমান ইবনে হিশাম ২. হযরত হাসান রাদ্বি, ৩. হযরত হুসাইন রাদ্বি. ৪. হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে জুবায়ের, ৫. ইবনে উম্মে কায়েস।

প্রশ্ন: রাসুল সা. এর কবর মোবারক কে খনন করেছেন এবং কিভাবে খনন করা হয়েছে?

উত্তর: হযরত আবু তালহা রাসুল সা. এর বগলী কবর খনন করেছেন। প্রশ্ন: রাসুল সা. এর কবরে কোন কোন ব্যক্তি অবতরণ করেছিলেন?

উত্তর: রাসুল সা. এর কবরের মধ্যে চারজন সাহাবী অবতরণ করেছিলেন। যথা-

১.হযরত আলী রাদ্বি. ২. হযরত আব্বাস রাদ্বি, এবং দু’ পুত্র ৩. হযরত কসম রাদ্বি, ৪. হযরত ফযল রাদ্বি.

প্রশ্ন: রাসুল সা. এর কবরের উপর কত গুলো ইট রাখা হয়েছিল এবং সেগুলো কিভাবে রাখা হয়েছিল। সেগুলো কি কাঁচা ছিল নাকি পোড়ানো ছিল?

উত্তর: নবীজি সা. এর কবরের উপর নয়টি ইট রাখা হয়েছিল। যেগুলো রাখা ছিল খাড়াভাবে এবং ইটগুলো ছিল কাঁচা

প্রশ্ন: রাসূল সা. এর কবর মোবারকের উপর কে পানি ছিটিয়েছিল এবং তার পরিমাণ কতটুকু ছিল? কোন দিক থেকে আরম্ভ করেছিল।

উত্তর: হযরত বিলাল রাদ্বি, এক মশক পানি মাথার দিক থেকে ছিটিয়ে দিয়েছিলেন।

প্রশ্ন: কোন সাহাবী যার জানাযার নামায স্বয়ং রাসুল সা. মসজিদে নববীর মধ্যে পড়িয়েছিলেন?

উত্তর: সে সৌভাগ্যবান সাহাবী হযরত সাহল ইবনে বায়জা মসলিমি।

প্রশ্ন: রাসুল সা. এর হাত মোবারকে সমাহিত হওয়ার সৌভাগ্য অর্জনকারী সাহাবী কে?

উত্তর: হযরত আব্দুল্লাহ জুলবাজাদাতাইন।

প্রশ্ন: কোন ব্যক্তি যাজে নবীজি সা. স্বয়ং হাত মোবারক দ্বারা প্রহার করেছেন, এবং সেই প্রহারেই তার মৃত্যু হয়েছে?

উত্তর: সে একজন কাফের, তার নাম উবাই ইবনে খলফ, উহুদের যুদ্ধে নবীজির হাতে তার মৃত্যু হয়েছিল।

প্রশ্ন: রাসুল সা. সর্বপ্রথম কোন যুদ্ধ করেছেন?

উত্তর: সর্ব প্রথম গাযওয়ায়ে আবওয়া, তারপরে বাওয়াত তারপরে উশায়রা।

প্রশ্ন: রাসুল সা. বায়তুল মুকাদ্দাস এর দিকে মুখ করে কতদিন নামায আদায় করেছিলেন?

উত্তর: ষোল অথবা সতের মাস নামায আদায় করেছিলেন। তারপরে বায়তুল্লাহ তথা কাবা শরীফের দিকে মুখ করে নামায পড়তে আদেশ করা হয়।

আরও পড়ুন: 

google news newsasia24

ফলো করতে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *